জানুন বলিউড থেকে কেন চিরকালের মতো বিদায় নিয়েছেন ভাগ্যশ্রী

15
জানুন বলিউড থেকে কেন চিরকালের মতো বিদায় নিয়েছেন ভাগ্যশ্রী

বলিউডের সর্বকালের প্রেম কাহি বড়নী সিনেমার তালিকা করা হয় সেই তালিকায় ভাগ্যশ্রীর নাম অবশ্যই থাকবে। নব্বইয়ের দশকে রোমান্টিক সিনেমা হল সুরজ বরজাতিয়ার পরিচালিত ম্যয়নে পেয়ার কিয়া। এই সিনেমাতে অভিনয় করার পর বলিউডের ভাইজান ওরফে সালমান খানের ভাগ্য খুলে যায় অপরদিকে এই সিনেমার পর বলিউড থেকে চিরকালের মতো বিদায় নেয় ভাগ্যশ্রী। এরপর এই অভিনেত্রী অনেক ভোজপুরি, কন্নর সিনেমাতে অভিনয় করলেও বলিউডে আর ফিরে আসেননি। কিন্তু কেন তিনি বলিউড ছেড়ে দিলেন?

ভাগ্যশ্রী কেরিয়ার জীবন শুরু হয় অনেক ছোট থেকেই। প্রথম অমল পালেকার পরিচালিত কাচ্চি ধূপ সিরিয়ালে ভাগ্যশ্রী প্রথম অভিনয় শুরু করেন। এই সিরিয়ালটি শেষ হওয়ার আগেই ভাগ্যশ্রী ছবিতে অভিনয়ের সুযোগ পেয়ে যান। অভিনয়ের আগে তার জীবনে আসে ব্যবসায়ী হিমালয়। ভাগ্যশ্রী লাজুক স্বভাবের হলেও হিমালয় কে তিনি প্রথম প্রপোজ করেন।

হিমালয় কে ভাগ্যশ্রী রক্ষনশীল পরিবার মেনে না নিলেও ম্যায়নে পেয়ার কিয়া’ সিনেমাতে শুটিং চলাকালে ভাগ্যশ্রী সাথে হিমালয়ের বিবাহ হয়। বিবাহের অনুষ্ঠানে হিমালয়ের পুরো পরিবার এবং ওই সিনেমার শুটিংয়ের পুরো ইউনিট উপস্থিত ছিলেন।

বিয়ের পর ভাগ্যশ্রী সিনেমায় অভিনয় করতে চাননি। পরিচালকদের বহুবার অনুরোধের পর তিনি বলেছিলেন যে তিনি সিনেমা করলে একমাত্র তার স্বামীর সাথে জুটি বেঁধে সিনেমাতে অভিনয় করবেন। কয়েদ মেঁ হ্যায়ঁ বুলবুল, ত্যাগী এবং পায়েল ছবিতে অভিনয় করেন ভাগ্যশ্রী এবং তার স্বামী হিমালয়। কিন্তু এই দুই জুটি কে ভারতীয় দর্শকরা পছন্দ করেননি তাই সে সময় ওই সিনেমাটি জনপ্রিয়তা অর্জন করেনি। তবুও ভাগ্যশ্রী তার সিদ্ধান্ত থেকে সরে দাঁড়াননি।

এক সাক্ষাৎকারে ভাগ্যশ্রী বলেন অনেকেই ভাবেন যে আমার স্বামী আমাকে অভিনয় করতে দেননি কিন্তু এই কথাটা একদমই ভুল। আমি অভিনয় করতে চায়নি। ভাগ্যশ্রী ছেলেমেয়ে এখন বড় হয়ে যাওয়ার পর তিনি আবারও অভিনয় জগতে ফিরে এসেছেন। লাউট আও তৃষ্ণা ধারাবাহিকে ভাগ্যশ্রী অভিনয় শুরু করেছে। প্রভাসের রাধে শ্যাম এবং কঙ্গনা রানাউতের খালাভি সিনেমাতে অভিনয় করতে দেখা যাবে ভাগ্যশ্রী কে।