তালিবান জঙ্গিদের নজরে এবার মহিলা যৌনকর্মীরা! খুঁজে বের করে দেওয়া হচ্ছে শাস্তি

35
তালিবান জঙ্গিদের নজরে এবার মহিলা যৌনকর্মীরা! খুঁজে বের করে দেওয়া হচ্ছে শাস্তি

আফগানিস্তানে তালিবানি শাসন প্রতিষ্ঠিত হওয়ার পরপরই কার্যত সেই রাষ্ট্রে মহিলাদের স্বাধীনতা খর্ব হয়েছে। আফগানিস্তানের ক্ষমতা দখল করার পর থেকেই কার্যত মহিলাদের দমন-পীড়নে নেমেছে তালিবানরা। যার জন্য বিভিন্ন ফতোয়া জারি করেছে তালিবান জঙ্গিরা। এবার আরও বড় এবং ভয়ঙ্কর পরিকল্পনা করছে তারা। জানা যাচ্ছে আফগানিস্তানে তালিবান জঙ্গিদের নজরে এবার রয়েছেন যৌনকর্মী মহিলারা। তাদের কিল লিস্ট তৈরি করেছে তালিবান জঙ্গিরা।

এই তালিকা ধরে ধরে তারা আফগানিস্থানে বসবাসকারী যৌনকর্মী তথা সেক্স ওয়ার্কার্স এবং তার পাশাপাশি পর্ন ব্যবসার সঙ্গে জড়িত মহিলাদের খুঁজে খুঁজে তাদের শাস্তি দেওয়ার কাজ শুরু করছে। তালিবান জঙ্গীদের বিধানে এমন মহিলাদের জন্য মাথা কাটা, পাথর ছুড়ে মারা এবং ফাঁসিতে ঝোলানোর বিধান রয়েছে। ইতিমধ্যেই এমন কাজে জড়িত মহিলাদের খুঁজে বের করার প্রক্রিয়া শুরু করে দিয়েছে জঙ্গিরা। এই খবরের শিউরে উঠছে সারা পৃথিবী।

তালেবানদের হাতে উঠে এসেছে এমন কিছু ভিডিও যেখানে আফগান সেক্স ওয়ার্কারসদের পশ্চিমি দেশের পুরুষ সেক্স ওয়াকার্সদের সঙ্গে পর্ণ সিনেমা বানাতে দেখা যাচ্ছে। বর্তমানে তালিগঞ্জ জঙ্গিরা সেই সমস্ত মহিলাদের সন্ধানে রয়েছে এবং তাদের সর্বসমক্ষে শাস্তি দেওয়ার পরিকল্পনা করছে। তাদের শুধু খুন করেই নয়, তালিবানদের বিধানে এমন মহিলাদের সর্বসমক্ষে ধর্ষণের বিধানও রয়েছে! ২০ বছর আগেও এমন মহিলাদের খুঁজে খুঁজে বের করে শাস্তি দিয়েছে তালিবানরা। সেই ভয়াবহ স্মৃতি আজও সাধারণের মনে বেশ ভালোভাবেই জেগে রয়েছে।

তালেবান জঙ্গিরা আফগানিস্তানের শাসন ক্ষমতা নেওয়ার পরপরই যে মহিলাদের জীবনযাত্রা ওষ্ঠাগত করে তুলবে সেটা আগে থেকেই নিশ্চিত ছিল। এর আগে তারা মহিলাদের পড়াশোনা, বাইরে চাকরি করতে যাওয়ার অধিকার কেড়ে নিয়েছিল। তালিবানদের ভয়ে উচ্চশিক্ষায় শিক্ষিত মহিলারা তাদের পড়াশোনার সার্টিফিকেট পুড়িয়ে দিয়েছেন। এর থেকেই বোঝা যায় আফগানিস্তানে তালিবানি রাজ নয়, চলছে তালিবানি ত্রাস।