ইরফান খানের মৃত্যুর এক বছর পূর্তি উপলক্ষে আজ সারাদিন তাকে স্মরণ করলেন তার পরিবার-পরিজন সহ অনুরাগীরা

27
ইরফান খানের মৃত্যুর এক বছর পূর্তি উপলক্ষে আজ সারাদিন তাকে স্মরণ করলেন তার পরিবার-পরিজন সহ অনুরাগীরা

আজ সিনে অনুরাগীদের জন্য অত্যন্ত দুঃখের একটি দিন। কারণ এক বছর আগে ঠিক আজকের দিনেই বলিউড অভিনেতা ইরফান খানের প্রয়াণ ঘটেছিল। কোটি কোটি অনুরাগীদের কাঁদিয়ে অকালেই পৃথিবী থেকে শেষ বিদায় নিয়েছিলেন সকলের প্রিয় অভিনেতা ইরফান। বিরল নিউরোএন্ডোক্রাইন টিউমারের জন্য অকালেই বলিউডের আকাশ থেকে ঝরে গেল একটি তরতাজা প্রাণ।

তবে মৃত্যুর আগের মুহূর্ত পর্যন্ত প্রাণবন্ত ছিলেন ইরফান। আজ তার মৃত্যুর এক বছর পূর্তি উপলক্ষে তার পরিবার-পরিজনেরা, অনুরাগীরা সারাদিন তাকে স্মরণ করছেন। তার কথা, তার হাসি, তার গান, তার অভিনীত সিনেমার দৃশ্য, তার ছবিতে ভরে উঠছে সোশ্যাল সাইট। প্রয়াত অভিনেতার স্ত্রী সুতপা সিকদার, তাদের একমাত্র পুত্র বাবিল খান আজ সকাল থেকেই কাছের মানুষটিকে সবথেকে বেশি মনে করছেন।

২০২০ সালের ২৯ এপ্রিলের রাত ১১.১১ মিনিটে ইরফান খানের হৃদস্পন্দন থেমে যায়। মৃত্যুর আগের মুহূর্ত পর্যন্ত তিনি তার প্রিয় গানটি গেয়ে শুনিয়েছিলেন। “বডে আচ্ছে লাগতে হ্যায়”, ইরফানের প্রিয় গান। শেষ দিন পর্যন্ত জীবনের কাছে হার মানেননি ইরফান। তার পুত্র বাবিল খানের মনে পড়ছে বাবার শেষ মুহূর্তের কিছু কথা। যখন মৃত্যুর আগে বারংবার সংজ্ঞা হারিয়ে ফেলছিলেন ইরফান। তখন একবার সংজ্ঞা ফিরে পেয়ে ছেলেকে বলেছিলেন, “আমি মরে যাচ্ছি”!

নিউরোএন্ডক্রিন টিউমারের পরে কোলন ইনফেকশনের বিরুদ্ধে লড়াই চলছিল তার। কেমোথেরাপির তীব্র যন্ত্রণা সহ্য করার পরেও উঠে দাঁড়িয়ে ছিলেন অভিনেতা। লেখার জন্য নিজের হাতে টেবিল বানিয়েছিলেন তিনি। সেই কথাও স্মরণ করছেন তার ছেলে বাবিল খান। ইরফান হয়তো আর আমাদের মাঝে নেই। তবে তার অভিনীত সিনেমাগুলি মারফত তার অভাব যেন অনেকাংশে ভুলে থাকা যায়।