জলপাইগুড়ি থেকে গ্রেফতার ভুয়ো চিকিৎসক

6
জলপাইগুড়ি থেকে গ্রেফতার ভুয়ো চিকিৎসক

রাজ্য ফের ভুয়ো চিকিৎসক গ্রেফতার। এই ভুয়ো চিকিৎসককে জলপাইগুড়ি জেলা থেকে গ্রেফতার করা হয়েছে। কলকাতা সংলগ্ন বারুইপুরের বাসিন্দা এই ভুয়ো চিকিৎসক জলপাইগুড়িতে গা-ঢাকা দিয়েছিলেন।

গত সোমবার বিকালে ঘটনাটি প্রকাশ্যে আসতেই এলাকায় চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে। পুলিশ জানিয়েছেন, ধৃতের নাম সুদীপ্ত সর্দার। দক্ষিণ ২৪ পরগনা জেলার বারুইপুরের বাসিন্দা সুদীপ্ত সর্দার অন্য চিকিৎসকের রেজিস্ট্রেশন নম্বর ব্যবহার করে রোগী দেখতেন বলে অভিযোগ। গত একমাস ধরে তিনি জলপাইগুড়ির রাজগঞ্জ এলাকায় গা ঢাকা দিয়েছিলেন। বাঁকুড়ার বড়জোড়া থানায় দায়ের হওয়া অভিযোগের ভিত্তিতে ওই জেলার পুলিশের সঙ্গে যৌথ অভিযানে জলপাইগুড়ি জেলার পুলিশ তাঁকে গ্রেফতার করে।

বাঁকুড়ার বড়জোড়া থানার পুলিশ সোমবারই ধৃতকে ট্রানজিট রিমাণ্ডে নিয়েছে ।পুলিশ সূত্রে খবর, বাঁকুড়ার বড়জোড়া থানা এলাকার এক চিকিৎসকের রেজিস্ট্রেশন নম্বর ব্যবহার করে সেখানে পসার জমিয়েছিলেন সুদীপ্ত সর্দার। সুদীপ্ত যে চিকিৎসকের রেজিস্ট্রেশন নম্বর ব্যবহার করতেন, তিনি ঘটনাটি জানতে পেরে বড়জোড়া থানায় অভিযোগ দায়ের করেন। তারপরই জলপাইগুড়ি চলে আসেন সুদীপ্ত।

তিনি বিগত একমাস ধরে জলপাইগুড়ির রাজগঞ্জ থানার অন্তর্গত দশদরগা এলাকায় এক পরিচিতের বাড়িতে গা-ঢাকা দিয়েছিলেন। গোপন সূত্রে খবর পেয়ে বড়জোড়া থানার পুলিশ জলপাইগুড়ি জেলা পুলিশের সঙ্গে যোগাযোগ করে। তদন্তে নেমে জলপাইগুড়ি জেলা পুলিশ রাজগঞ্জ থানা এলাকায় ওই ভুয়ো চিকিৎসকের খোঁজ পায়। পরে বড়জোড়া থানার পুলিশ, জলপাইগুড়ি জেলা পুলিশের রাজগঞ্জ থানার সহযোগিতা নিয়ে দশদরগা এলাকায় যৌথ অভিযান চালায়।