দেশের প্রতিটি মানুষকে ঐক্যবদ্ধ হয়ে মহামারী মোকাবিলার দায়িত্ব নিতে হবেঃ অমিত শাহ

5
দেশের প্রতিটি মানুষকে ঐক্যবদ্ধ হয়ে মহামারী মোকাবিলার দায়িত্ব নিতে হবেঃ অমিত শাহ

গতকাল অর্থাৎ মঙ্গলবার, জাতির উদ্দেশ্যে ভাষণ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। উৎসবের প্রাক্কালে দেশবাসীকে বারবার করোনা সংক্রমণ সম্পর্কে সতর্ক করেছেন তিনি। প্রধানমন্ত্রীর বক্তব্য অনুসারে,যতদিন না পর্যন্ত ভাইরাস প্রতিরোধী প্রতিষেধক বাজারে আসছে, কতদিন দেশবাসীকে সতর্কতামূলক সমস্ত বিধি-নিষেধ মেনে চলতে হবে। নতুবা সমূহ বিপদ। প্রধানমন্ত্রীর ভাষণ প্রদানের পরে দেশবাসীর উদ্দেশ্যে টুইট করলেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ।

এদিন একটি টুইট বার্তায় কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী দেশবাসীর উদ্দেশ্যে বলেন, দেশবাসীর সুস্থতা রক্ষার্থে সবরকম ব্যবস্থা করে চলেছে কেন্দ্র। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী এবং কেন্দ্রীয় সরকারের প্রত্যেক আধিকারিক দেশবাসীর জন্য যথেষ্ট তৎপরতার সঙ্গে করোনা মোকাবিলা করে চলেছেন। তবে এই দায়ভার শুধুমাত্র কেন্দ্রের একার নয়। দেশের প্রতিটি মানুষকেও মহামারী মোকাবিলার দায়িত্ব নিতে হবে।

তিনি তাঁর টুইট বার্তায় আরও লিখেছেন, সমগ্র ভারতবাসী ঐক্যবদ্ধ হয়ে করোনার বিরুদ্ধে লড়াই করলে অবশ্যই মহামারীকে পরাস্ত করা সম্ভব হবে। পাশাপাশি, দেশবাসীকে ঘরে থাকার আবেদনও জানিয়েছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী। যতদিন না ভ্যাকসিন আবিষ্কৃত হচ্ছে, ততদিন সাবধানতা অবলম্বন করতেই হবে। উল্লেখ্য, কেন্দ্রীয় সরকারের তরফ থেকে গঠিত প্যানেলের তরফ থেকে আশঙ্কা প্রকাশ করে জানানো হয়েছে, আগামী বছরের ফেব্রুয়ারি মাসের মধ্যেই দেশের প্রায় ৫০শতাংশ মানুষ করোনা আক্রান্ত হবেন।

অর্থাৎ আগামী বছরের ফেব্রুয়ারি মাসের আগেই দেশের ১.৩ বিলিয়ন মানুষ করোনা আক্রান্ত হতে চলেছেন। সমীক্ষার রিপোর্ট অনুযায়ী, এ পর্যন্ত দেশের প্রায় ৩০ শতাংশ মানুষ করোনা সংক্রমিত। মোট আক্রান্তের নিরিখে সমগ্র বিশ্বের মধ্যে আমেরিকার পরেই দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে ভারত।