রাজ্যে জাকিয়ে শীত না পরলেও নীচে নামছে তাপমাত্রা

10
রাজ্যে জাকিয়ে শীত না পরলেও নীচে নামছে তাপমাত্রা

শীতের আমেজ বেশ ভালই টের পাচ্ছেন বঙ্গবাসী। শহর থেকে শহরতলী, রাজ্যে প্রত্যন্ত অঞ্চলগুলিতে শীতের প্রভাব সুস্পষ্ট। বিগত কয়েকদিন ধরেই তাপমাত্রার পারদ নিম্নমুখী। সোমবার সকালেও সেই ধারা অব্যাহত। উল্লেখ্য, এদিন সকাল থেকেই রোদ ঝলমলে আকাশ বিরাজ করছে। তাপমাত্রা অনেকটাই কমের দিকে। এ দিনের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ১৫.৭ ডিগ্রি সেলসিয়াসের কাছাকাছি। তবে চলতি সপ্তাহটা শীতের আমেজ নিয়েই কাটাতে হবে রাজ্যবাসীকে।

আবহবিজ্ঞানীরা জানাচ্ছেন, এই মুহূর্তেই রাজ্যে জাঁকিয়ে শীত পড়ার কোনো সম্ভাবনা নেই। মৌসম বিভাগ সূত্রে খবর, আগামী দু-তিন দিনের মধ্যেই রাজ্যের তাপমাত্রার পারদ অন্তত চার ডিগ্রি নিচে নেমে যাওয়ার সম্ভাবনা আছে। তবে কলকাতার তাপমাত্রা আগামীকাল থেকেই বেশ কিছুটা নিচের দিকে নামতে শুরু করবে। তার পরের দিন অর্থাৎ বুধবার কলকাতা শহর রাজ্যের অন্যান্য অংশের তাপমাত্রা কম থাকবে বলে জানানো হয়েছে।

আলিপুর আবহাওয়া দপ্তরের তরফ থেকে জানানো হয়েছে, সোমবার কলকাতার সর্বাধিক তাপমাত্রা ২৯.১ ডিগ্রি সেলসিয়াসের কাছাকাছি থাকবে। সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ১৬.৬ ডিগ্রী সেলসিয়াস। বাতাসে আদ্রতার পরিমাণ সর্বাধিক ৯৩ শতাংশ এবং সর্বনিম্ন ৩৮ শতাংশ। তবে তাপমাত্রা কমলেও স্বস্তি নেই। বঙ্গোপসাগরে ঘনীভূত হচ্ছে নিম্নচাপ। দক্ষিণ-পূর্ব বঙ্গোপসাগরে নিম্নচাপ ক্রমশই শক্তি বাড়াচ্ছে।

আবহাওয়া বিভাগের তরফ থেকে জানানো হয়েছে, বঙ্গোপসাগরে সৃষ্ট এই নিম্নচাপটি ক্রমশ তামিলনাড়ু এবং পন্ডিচেরি উপকূলের দিকে এগোচ্ছে। পশ্চিমবঙ্গে অবশ্য এর সরাসরি কোনো প্রভাব পড়বে না। বুধবার থেকে পশ্চিমবঙ্গের তাপমাত্রা কিছুটা নামবে। পশ্চিমবঙ্গের প্রতিবেশী রাজ্য উড়িষ্যাতেও ঘন কুয়াশা সতর্কবার্তা জারি করা হয়েছে। মোট কথা, চলতি সপ্তাহে শীতের আমেজে নিয়েই সন্তুষ্ট থাকতে হবে রাজ্যবাসীকে।