বার্ড ফ্লুর আবহেও মোরগের মাংসের দাম প্রতি কেজি ৩০০০ টাকা! জানেন কোথায়?

9
বার্ড ফ্লুর আবহেও মোরগের মাংসের দাম প্রতি কেজি ৩০০০ টাকা! জানেন কোথায়?

করোনা আতঙ্কের পাশাপাশি বার্ড ফ্লুয়ের আতঙ্কে জর্জরিত সারাদেশ। দেশের বেশ কিছু রাজ্যে মহামারীর আকার ধারণ করেছে বার্ড ফ্লু। নিত্যদিন হাজার হাজার হাঁস, মুরগি মারা যাচ্ছে। পাখির মাংস এবং ডিমের ব্যবহার নিয়েও সাধারণের মনে আতঙ্ক দেখা দিয়েছে। এমতাবস্থায় বেশকিছু রাজ্যে মুরগির মাংস কেজি প্রতি কমতে কমতে ১০০ টাকায় এসে থেমেছে। তাতেও বিক্রি তেমনভাবে হচ্ছে না বলেই জানাচ্ছেন ব্যবসায়ীরা।

এই রকম একটি পরিস্থিতিতে যখন দেশের অন্তত দশটি রাজ্যের মুরগির ডিম এবং মাংস ব্যবসায়ীরা ক্রমাগত লোকসানের মুখে পড়ছেন, তখন অন্ধপ্রদেশের মতো একটি রাজ্যে মুরগির দাম দাঁড়িয়েছে প্রতি কেজি ১০০০-২০০০ টাকা! শুধু তাই নয়, মোরগ সেখানে বিক্রি হচ্ছে প্রতি কেজি ৩০০০ টাকা দরে! নেপথ্যে, “মোরগের লড়াই”। সাধারণত মকর সংক্রান্তির পরদিনই “মোরগ লড়াই” নিয়ে মেতে ওঠে সারা রাজ্য। মহামারীতেও তার অন্যথা হয়নি।

পুরনো দিনের ঐতিহ্য মেনে অন্ধ প্রদেশের বিভিন্ন জেলায় মোরগ লড়াই উৎসব পালিত হয়। এর পাশাপাশি গুন্টুর, কৃষ্ণ,পূর্ব ও পশ্চিম গোদাবরী জেলায় চড়া দামে বিক্রি হচ্ছে মুরগির মাংস। মোরগ লড়াইয়ে অংশগ্রহণ করার জন্য মোরগের মালিকেরা ভাল জাতের মোরগ প্রতিপালন করেন। ছোট থেকেই তাকে লড়াইয়ের জন্য প্রস্তুত করা হয়, প্রশিক্ষণ দেওয়া হয়। এরপর আসে বহু প্রতীক্ষিত সেই লড়াইয়ের দিন।

লড়াইয়ে যে মোরগ ঘায়েল অর্থাৎ পরাজিত হয়ে যাবে, সেই মোরগটিও জয়ী মোরগের মালিকের হয়ে যাবে। এরপর সেই মোরগটির মাংস চড়া দামে বিক্রি করে দেওয়া হবে। অপর পক্ষে জয়ী মোরগটিকেও কমপক্ষে আট থেকে দশ হাজার টাকায় বিক্রি করে দেওয়া হয়। কোনো কোনো ক্ষেত্রে সেই জয়ী মোরগের দাম ১৫ হাজার টাকা থেকে ২ লক্ষ টাকাও ছাড়িয়ে যায়। এই মোরগের মাংসের পুষ্টিগুণ প্রচুর। তাই গ্রাহকদের মধ্যেও এই বিশেষ প্রজাতির মোরগের মাংস কেনার আগ্রহ লক্ষ্য করা যায়।