বেতন দিতে না পারলেও পড়ুয়াদের পড়াশোনায় ব্যাঘাত ঘটাতে পারবে না স্কুল! কলকাতা হাইকোর্ট

13
বেতন দিতে না পারলেও পড়ুয়াদের পড়াশোনায় ব্যাঘাত ঘটাতে পারবে না স্কুল! কলকাতা হাইকোর্ট

ছাত্র-ছাত্রীরা বেতন দিতে না পারলে বেসরকারি স্কুল কর্তৃপক্ষ তাদের পড়াশোনায় ব্যাঘাত ঘটাতে পারবে না। সম্প্রতি কলকাতা হাইকোর্টের ডিভিশন বেঞ্চের তরফ থেকে এমনই নির্দেশ দেওয়া হলো বেসরকারি স্কুল কর্তৃপক্ষকে। স্কুল ফি মামলায় পুরনো নির্দেশ মনে করিয়ে দিল বিচারপতি ইন্দ্র প্রসন্ন মুখোপাধ্যায় ও বিচারপতি মৌসুমী ভট্টাচার্যের ডিভিশন বেঞ্চ।

উল্লেখ্য এর আগে আদালত নির্দেশ দিয়েছিল ছাত্র-ছাত্রীদের অভিভাবকদের স্কুলের বকেয়া 100% বেতন মিটিয়ে দিতে হবে। তবে সেই নিয়ে বিভিন্ন স্কুলে সমস্যা হতে থাকে। একাধিক বেসরকারি স্কুলের বিরুদ্ধে অভিযোগ ছিল বেতন না দিতে পারার জন্য পড়ুয়াদের অনলাইন ক্লাসে অংশ নিতে দেওয়া হচ্ছে। কোথাও আবার অ্যাডমিট কার্ড না পাওয়ার অভিযোগ উঠেছিল।

অভিযোগ নিয়ে শীর্ষ আদালতের দ্বারস্থ হন অভিভাবকেরা। মামলাকারীরা জানিয়েছেন, গত অক্টোবরে 100% বেতন মেটানোর নির্দেশ দিয়েছিল আদালত, সেই রায়ের বিরুদ্ধে সুপ্রিম কোর্টে চ্যালেঞ্জ জানানো হয়েছে। সোমবার সেই মামলার শুনানি রয়েছে। এই মামলার শুনানি আপাতত স্থগিত রাখা হোক।

এদিকে একটি বেসরকারি স্কুল কর্তৃপক্ষ বেতন না মেটানোয় কয়েকজন পড়ুয়াকে অনলাইন ক্লাসে অংশ নিতে দেননি বলে অভিযোগ নিয়ে আদালতের দ্বারস্থ হন কয়েকজন অভিভাবক। শুক্রবার স্কুলের তরফের আইনজীবী আদালতে জানিয়েছেন পুলিশ অধ্যক্ষকে বারবার ডেকে পাঠিয়ে হেনস্থা করছে। শিক্ষা দপ্তরের কাছে স্কুলের উপর নিষেধাজ্ঞা তুলে নেওয়ার সুপারিশ করা হয়েছে। পরবর্তী নির্দেশ না পাওয়া পর্যন্ত ওই বেসরকারি স্কুল নিয়ে কোনো পদক্ষেপ করার উপর নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে আদালত। তবে বেতন নাম এটা নয় কোন পড়ুয়ার পড়াশোনায় ব্যাঘাত ঘটানো যাবে না বলে মনে করিয়ে দিয়েছে কলকাতা হাইকোর্টের ডিভিশন বেঞ্চ।