মালিয়া, চোকসি এবং নীরব মোদীর সম্পত্তি বিক্রি করে টাকা ফেরালো ইডি

30
মালিয়া, চোকসি এবং নীরব মোদীর সম্পত্তি বিক্রি করে টাকা ফেরালো ইডি

ভারতবর্ষের সবথেকে বড় আর্থিক দুর্নীতির সঙ্গে জড়িত তিন ব্যক্তি হলেন বিজয় মালিয়া মেহুল চোকসি এবং নীরব মোদী। ভারতের বিভিন্ন ব্যাংক থেকে ৯ হাজার কোটিরও বেশি টাকা আত্মসাৎ করে বিদেশে পালিয়ে গিয়েছিলেন বিজয় মালিয়া। কয়েক হাজার কোটি টাকা আত্মসাৎ করে দেশ ছেড়ে পালিয়েছিলেন নীরব মোদী। তাদের দেশে ফিরিয়ে আনার জন্য উঠেপড়ে লেগেছে ভারত সরকার। ভারতের টাকা ফেরত পেতে এই ধনকুবেরদের সম্পত্তি ক্রোক করতে শুরু করেছে ইডি।

শুক্রবার ইডির তরফ থেকে একটি বিবৃতিতে জানানো হয়েছে কিংফিশার এয়ারলাইন্সের শেয়ার বিক্রি করে প্রায় ৭৯২.১১ কোটি টাকা উদ্ধার করল ভারতীয় স্টেট ব্যাঙ্ক নেতৃত্বাধীন কনসোর্টিয়াম। এর আগে ইডির হস্তান্তর করা সম্পত্তি বিক্রি করে প্রায় ৭১৮১.৫০ কোটি টাকা পুনরুদ্ধার করেছিল কনসোর্টিয়াম। উল্লেখ্য, বিজয় মালিয়া, নীরব মোদী এবং মেহুল চোক্সি মিলে ভারতীয় ব্যাঙ্কগুলি থেকে প্রায় ২২৫৮৫.৮৩ কোটি টাকা ঋণ নিয়েছিলেন।

ইডি জানিয়েছে, তার মধ্যে ১২৭৬২.২৫ কোটি টাকা ইতিমধ্যেই কনসোর্টিয়ামের মাধ্যমে ব্যাঙ্কগুলিকে হস্তান্তর করা হয়েছে। এর মধ্যে থেকে ৯৩৭১ কোটি টাকার সম্পত্তি ইতিমধ্যেই ব্যাঙ্কগুলি হাতে পেয়ে গেছে। আদালতের তরফে অনুমতি পাওয়ার পর নীরব মোদীর ৩৭২৮.৬৪ কোটি টাকার সম্পত্তিও কনসোর্টিয়ামের হাতে হস্তান্তর করা হয়েছে বলে জানিয়েছে ইডি। নীরব মোদীর বোন পুরবি মোদীর বিদেশি অ্যাকাউন্ট থেকেও ইডিকে ১৭.২৫ কোটি টাকা হস্তান্তর করেছে।

আগামী দিনে পিএমএলএর অধীনে এই তিন প্রতারকের ১৮২১৭.২৭ কোটি টাকার সম্পত্তি বাজেয়াপ্ত করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। হিসেব অনুযায়ী ব্যাঙ্কগুলি তাদের দেয় ঋণের ৫৮% ইতিমধ্যেই ফেরত পেয়ে গিয়েছে। আগামী দিনে বাজেয়াপ্ত সম্পত্তির বাকি টাকাও তাদের ফিরিয়ে দেওয়া হবে বলে জানিয়েছে ইডি।