মুখ্যমন্ত্রীর মুখের আদলে দুর্গা মূর্তি গড়ছে কলকাতায়! কটাক্ষ বিরোধীদের

29
মুখ্যমন্ত্রীর মুখের আদলে দুর্গা মূর্তি গড়ছে কলকাতায়! কটাক্ষ বিরোধীদের

চলতি বছরেও করোনা পরিস্থিতির মধ্যেই বাঙালির সর্বশেষ্ঠ উৎসব দুর্গোৎসব পালন করা হবে। এই দফার দুর্গা পুজোতে বাগুইয়াটির নজরুল পার্ক উন্নয়ন সমিতির পুজো এবার নজরকাড়া দুর্গা পুজোর আয়োজন করেছে। এই পূজা কমিটির দেবী দুর্গার মূর্তি মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের আদলে বানানো হয়েছে। হিন্দু বাঙালির ভাবাবেগে রাজনীতির সমীকরণ এসে আঘাত করেছে এই কাজে। এই মর্মে সুর চড়াচ্ছেন বিরোধীরা।

বিজেপির আইটি সেলের প্রধান অমিত মালব্য দিল্লি থেকে এই কাজের প্রতিবাদ করেছেন। তার দাবি এতে দেবী দুর্গার অপমান করা হয়েছে। তিনি দাবি করেছেন রাজ্য সরকারকে অবিলম্বে এই কাজ থামাতে হবে। কারণ এতে হিন্দু ধর্মাবলম্বীদের ভাবাবেগে আঘাত প্রাপ্ত হয়েছে। তবে পুজো উদ্যোক্তারা অবশ্য বিজেপি প্রধানের এই দাবি মেনে নিতে চাইছেন না। তাদের দাবি এই কাজে হিন্দু ধর্মীয় ভাবাবেগে আঘাত হানা হয়নি।

তারা দাবি করছেন পূজার জন্য দেবীমূর্তি আলাদা বানানো হবে। সেই মূর্তিতে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের মুখ নয়, আসল দেবী প্রতিমার মুখ বসানো হবে। প্রসঙ্গত কলকাতার বড় বড় পুজো কর্তৃপক্ষ বরাবর থিম পূজার আয়োজন করে থাকে। গতবছর করোনাকালে বেহালা ক্লাব পরিযায়ী শ্রমিকদের দুর্দশার কথা তাদের থিমের মাধ্যমে ফুটিয়ে তুলেছিল। আর এই বছরে নজরুল পার্ক উন্নয়ন সমিতি মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এর আদলে দেবী মূর্তি গড়ে সমস্ত লাইমলাইট নিজেদের দিকে কেড়ে নিয়েছে।

যদিও এই প্রচেষ্টার বিরুদ্ধে কথা বলতে ছাড়ছে না বিরোধী শিবির। বিরোধী শিবিরের সদস্যরা এই ব্যাপারে রাজ্য সরকারকেই দায়ী করছে। একই সঙ্গে আবার পুজো উদ্যোক্তাদের কটাক্ষ করতেও ছাড়ছেন না তারা। তবে সমস্ত সমালোচনা, কটাক্ষ এবং অভিযোগ অস্বীকার করে দূর্গা পূজার আয়োজন করছে নজরুল পার্ক উন্নয়ন সমিতি।