১লা ডিসেম্বর থেকে বাস্তবায়িত হতে চলেছে “দুয়ারে দুয়ারে সরকার”, দেখে নিন কি কি সুবিধা মিলবে

20
১লা ডিসেম্বর থেকে বাস্তবায়িত হতে চলেছে

আগামী মঙ্গলবার অর্থাৎ পয়লা ডিসেম্বর থেকেই রাজ্যের প্রস্তাবিত নতুন প্রকল্প “দুয়ারে দুয়ারে সরকার” বাস্তবায়িত হতে চলেছে। রাজ্য সরকার সূত্রে খবর, এই নতুন প্রকল্পে ১২টি খাতে পরিষেবা রাজ্যবাসীর ঘরে ঘরে পৌঁছে দেবেন রাজ্য সরকারি কর্মচারীরা। শুধু তাই নয়, রাজ্য সরকারি কর্মচারীরা রাজ্যের প্রতিটি মানুষের ঘরে ঘরে পৌঁছে তাদের অভাব অভিযোগ শুনবেন। কেউ যদি রাজ্যের কোনো প্রকল্প থেকে বঞ্চিত হন তা হলে তৎক্ষণাৎ তাকে সেই প্রকল্পের অন্তর্ভুক্ত করার ব্যবস্থাও করা হবে।

উল্লেখ্য, গত সপ্তাহেই বাঁকুড়া সফরে গিয়ে মুখ্যমন্ত্রী রাজ্য সরকারের এই নতুন পরিকল্পনার কথা ঘোষণা করেন। নির্বাচনের পূর্বে রাজ্যের ঘরে ঘরে সরকারি পরিষেবা পৌঁছে দেওয়ার জন্যই এমন অভিনব পরিকল্পনা গ্রহণ করেছেন তিনি। রাজ্যের প্রশাসনিক সূত্রে খবর, এই পরিকল্পনার আওতায় যে ১২ টি প্রকল্প রয়েছে সেগুলি হল-

খাদ্য ও সরবরাহ দফতরের “খাদ্যসাথী প্রকল্প”,
স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ দফতরের “স্বাস্থ্যসাথী প্রকল্প”,
অনগ্রসর শ্রেণিকল্যাণ ও আদিবাসী উন্নয়ন দফতরের জাতিগত শংসাপত্র ও “শিক্ষাশ্রী প্রকল্প”,
আদিবাসী উন্নয়ন দফতরের “জয় জোহার প্রকল্প”,
অনগ্রসর শ্রেণিকল্যাণ দফতরের “তফসিলি বন্ধু প্রকল্প”,
নারী ও শিশু উন্নয়ন এবং সমাজ কল্যাণ দফতরের “কন্যাশ্রী, রূপশ্রী প্রকল্প”,
সংখ্যালঘু বিষয়ক ও মাদ্রাসা শিক্ষা দফতরের “ঐক্যশ্রী প্রকল্প”,
পঞ্চায়েত ও গ্রামোন্নয়ন দফতরের “একশো দিনের কাজের প্রকল্প”,
এছাড়া কৃষি দপ্তরের “কৃষক বন্ধু” এবং ভূমি ও ভূমি সংস্কার দফতরের মিউটেশন প্রকল্প।

সরকারি সূত্রে খবর, আগামী দুই মাস ধরে রাজ্যের প্রতিটি ব্লকে এই কর্মসূচি গ্রহণ করা হয়েছে। স্কুল, কলেজ, কমিউনিটি হল সহ রাজ্যের প্রতিটি সরকারি প্রতিষ্ঠানে সরকারি আধিকারিকের বসবেন। সেখানে প্রতিটি প্রকল্পের জন্য নির্দিষ্ট ফর্ম পাওয়া যাবে। পাশাপাশি, সরকারের বিরুদ্ধে কোনো অভিযোগ জানানোর থাকলে ড্রপবক্সে রাজ্যবাসী তা জানাতে পারবেন।