জানেন কি যেকোনো শুভ অনুষ্ঠানে স্বস্তিক চিহ্ন কেন আঁকা হয়? দেখে নিন

65
জানেন কি যেকোনো শুভ অনুষ্ঠানে স্বস্তিক চিহ্ন কেন আঁকা হয়? দেখে নিন

সনাতন ধর্মে স্বস্তিক চিহ্নের আলাদাই এক মাহাত্ম্য রয়েছে। বিয়ে বাড়ি হোক বা যেকোনো শুভ অনুষ্ঠান, স্বস্তিক চিহ্ন ছাড়া অনুষ্ঠান যেন অসম্পূর্ণ থেকে যায়। যেকোনো শুভ অনুষ্ঠানেই বাড়ির দেওয়ালে কিংবা মঙ্গল ঘটের উপর স্বস্তিক চিহ্ন আঁকা হয়। স্বস্তিক চিহ্ন আসলে মঙ্গলের প্রতীক। স্বস্তিক কথার নামের মধ্যেই লুকিয়ে রয়েছে তার আসল মানে। স্বস্তিক অর্থাৎ সু অস্তি, অর্থাৎ শুভ অস্তিত্ব।

স্বস্তিক চিহ্নের মধ্যেই সকল ধর্মের মানুষের কল্যাণ নিহিত আছে। গীতার কথা অনুসারে, যা হচ্ছে তা ভালই হচ্ছে। যা হবে তাও ভালই হবে। ভালো-মন্দ, সুখ-দুঃখ, চক্রের মতো ঘুরছে। প্রকৃতির মতোই আমাদের জীবন। প্রকৃতিতে যেমন শীতের পর বসন্ত আসে, তেমনি আমাদের জীবনেও শৈশব, কৈশোর, যৌবন, বার্ধক্য চক্রাকারে ঘুরছে।

স্বস্তিক চিহ্নের চারটি বাহু চার যুগের প্রতীক। এই চারটি বাহুর মধ্যে একটি সত্যযুগ, দ্বিতীয়টি ত্রেতাযুগ, তৃতীয়টি দ্বাপর যুগ এবং চতুর্থটি কলিযুগকে নির্দেশ করে। স্বস্তিকের চার বাহুর মধ্যে রয়েছে চারটি বিন্দু। এই চার বিন্দু চারটি দিককে নির্দেশ করে।