জানেন কি সুইস ব্যাংকে একাউন্ট খুলতে কত টাকা ডিপোজিট করতে লাগে? জেনে নিন

103
জানেন কি সুইস ব্যাংকে একাউন্ট খুলতে কত টাকা ডিপোজিট করতে লাগে? জেনে নিন

বিশ্বে এ পর্যন্ত যত রকম আর্থিক কেলেঙ্কারি হয়েছে বা আর্থিক কেলেঙ্কারির সঙ্গে যাদের নাম জড়িয়েছে, বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই সেইসঙ্গে সুইজারল্যান্ডের একটি বিশেষ ব্যাংকের নামও জড়িয়েছে। “সুইস ব্যাংক”, যে ব্যাংকে নাকি পৃথিবীর যেকোন প্রান্তের মানুষ যথেচ্ছ পরিমাণে টাকা জমিয়ে রাখতে পারেন! কালো টাকা হোক কিংবা প্রতারণার টাকা, সুইস ব্যাংক যেন আর্থিক তছরুপের সঙ্গে জড়িত থাকা ব্যক্তিদের একমাত্র আশ্রয়স্থল!

আজ থেকে প্রায় ৩০০ বছর পূর্বে ফ্রান্সের রাজাদের গোপন সম্পদ সুরক্ষিতভাবে লুকিয়ে রাখার উদ্দেশ্যে এই ধরনের একটি ব্যাংক গড়ে উঠেছিল। বর্তমানে সেটি ফুলে-ফেঁপে উঠেছে। সুইস ফাইন্যান্সিয়াল মার্কেট সুপারভাইজারি অথরিটি অধীনে বর্তমানে সুইজারল্যান্ডের অন্তত ৩০০ টিরও বেশি ব্যাংক অন্তর্ভুক্ত রয়েছে। পৃথিবীর যেকোন প্রান্তের বাসিন্দারাই এই ব্যাংকে একাউন্ট খুলতে পারেন।

এই ব্যাংকে গ্রাহকের তথ্য সম্পূর্ণ সুরক্ষিত থাকে। তবে শুধুই যে কুখ্যাত মাফিয়া কিংবা কালো টাকার অধিকারীরা এই ব্যাংকে অ্যাকাউন্ট খুলছেন এমনটা কিন্তু নয়। অনেক সাধারণ মানুষও আর্থিক সুরক্ষা পেতে এবং নিরাপত্তা বজায় রাখতে সুইস ব্যাংকে একাউন্ট খুলে থাকেন এবং সেখানে নিজের সম্পত্তি জমিয়ে থাকেন। বলা হয় কর ফাঁকি দেওয়ার ক্ষেত্রেও নাকি বেশ সাহায্য করে সুইস ব্যাংক।

১৮ বছরের উর্ধ্বের যে কোন ব্যক্তি সুইস ব্যাংকে একাউন্ট খুলতে পারেন। এই ব্যাংকের সুদের হার -০.৭৫ শতাংশ! অর্থাৎ সুদের হার কিন্তু ব্যাংক দেবে না। উল্টে এই ব্যাংকে টাকা রাখার জন্য গ্রাহককেই সুদ দিতে হবে। তবুও পৃথিবীর বিভিন্ন প্রান্তের মানুষ নিজেদের টাকা সুরক্ষিত রাখার উদ্দেশ্যে সুইস ব্যাংকে একাউন্ট খুলে থাকেন। ব্যাংকের নিরাপত্তার গ্যারান্টিই এর প্রধান কারণ। গ্রাহকের টাকার উৎস, তার সম্পত্তির পরিমাণ সবই সুরক্ষিত থাকবে সুইস ব্যাংকে। কেউ জানতে পারবেন না তার সম্পত্তির উৎস। তাই কালোবাজারিরা ঝঞ্ঝাট এড়াতে সুইস ব্যাংকে অর্থ গচ্ছিত করে রাখে।