জীবনের সকল দুঃখ-দুর্দশা কাটিয়ে উঠতে আজ শনিবার রাতে করুন এই কাজ

7
জীবনের সকল দুঃখ-দুর্দশা কাটিয়ে উঠতে আজ শনিবার রাতে করুন এই কাজ

সপ্তাহের সাতটি দিনই কোনো না কোনো দেবতার বার হিসেবে ধরা হয়। এই দিনগুলিতে নির্দিষ্ট সেই দেবতা বা দেবীর আরাধনা করলে শুভফল পাওয়া যায় বলেই বিশ্বাস করেন সনাতন ধর্মে বিশ্বাসীরা। আজ শনিবার। গ্রহরাজ শনি দেবতার বার হলো শনিবার। আবার শনিবার কালীর বারও বটে। তাই হিন্দু ধর্মাবলম্বীদের কাছে শনিবারের এক বিশেষ মাহাত্ম্য রয়েছে। সংসারে শনি দেবতার দৃষ্টি যাতে না পড়ে, তার জন্য শনিদেবকে সদা সন্তুষ্ট রাখতে হয়। কিন্তু শনিদেব কে সন্তুষ্ট রাখা যায় কিভাবে?

হিন্দু ধর্মের বিধান অনুযায়ী খুব সহজ একটি উপায় আছে, যে উপায় অবলম্বন করে চললে অনায়াসে শনি দেবতার কৃপা দৃষ্টি লাভ হবে। জীবনের সকল দুঃখ-দুর্দশা কেটে যাবে, অর্থাগম হবে, সর্বোপরি শনি দেবতার আশীর্বাদ পাওয়া যাবে। এর জন্য প্রয়োজন কিছু বিশেষ উপকরণ। প্রয়োজন সাতটি গোটা লবঙ্গ, কিছু সরষে, নতুন সাদা কাপড়ের টুকরো এবং ঝাঁটা দিয়ে কুড়নো কিছুটা মাটি আর মনে শনিদেবের জন্য ভক্তি এবং বিশ্বাস।

এরপর সমস্ত উপকরণ একত্রিত করে কোনো এক শনিবারে শনি দেবতার মন্দিরে যেতে হবে। সর্ব প্রথমে সাদা পরিস্কার কাপড়টিকে শনি দেবতার সামনে রেখে তার উপর একটি একটি করে লবঙ্গ সুন্দর করে সাজিয়ে রাখুন। এরপর একটি একটি করে লবঙ্গ নিয়ে শনি দেবতার চরণে রেখে প্রণাম করে সাত পাক ঘুরতে হবে। তারপর সব কটি লবঙ্গ আবার কাপড়ের উপর রেখে তার উপর ঘর ঝাঁট দেওয়ার মাটি ছড়িয়ে উপর থেকে কিছুটা সরষে ছড়িয়ে দিতে হবে। এরপর কাপড়টিকে ভালো করে বেঁধে নিয়ে শনি দেবতার সামনে বসে নিজের সকল মনোবাঞ্ছা তার সামনে বলতে হবে।

মনের ইচ্ছে প্রকাশের পর তিনবার ফু দিয়ে দিন। তারপর কাপড়ের পুঁটুলিটিকে দেবতার চরণে অর্পণ করে দিন। পুরো দিনটি ওই কাপড়ের পুটলিটি দেবতার চরণেই থাকতে দিন। এমনটা করলে শনি দেবতার আশীর্বাদ পাবেন। তবে শর্ত একটাই, মনে বিশ্বাস এবং ভক্তি রাখতে হবে। তা না হলে সম্পূর্ণটাই বৃথা। ভক্তিভরে এমনভাবে শনিদেবের উপাসনা করতে পারলেই শনি দেবতার কৃপা দৃষ্টি লাভ হবে। সংসারে উন্নতি হবে। শনিদেবের কৃপায় অর্থ কষ্ট থাকবে না।