বাধা বিপত্তি কাটিয়ে সহজেই সাফল্যের শিখরে পৌঁছতে পর পর এগারোটি মঙ্গলবার করুন এই কাজ

5
বাধা বিপত্তি কাটিয়ে সহজেই সাফল্যের শিখরে পৌঁছতে পর পর এগারোটি মঙ্গলবার করুন এই কাজ

আমরা সকলেই সাফল্যের পিছনেই দৌড়াদৌড়ি করে, কিন্তু পরিশ্রম করেও সাফল্য পাওয়াটা অনেক কষ্টসাধ্য হয়ে দাঁড়ায়। আসরে সাফল্যের জন্য শুধুমাত্র পরিশ্রম করলেই হবে না, তার জন্য প্রয়োজন সৌভাগ্য। সকলেরই সৌভাগ্য সমান হয় না তাই সাফল্যটা সমান ভাবে আসে না কিন্তু হিন্দু শাস্ত্র অনুযায়ী সাফল্যের শিখরে পৌঁছতে গেলে পর পর এগারোটি মঙ্গলবার এই কাজগুলি করতে হবে, তাহলে একদিকে বাধা বিপত্তি দূর হবে অন্যদিকে জীবনের সাফল্য অনিবার্য-

১. টানা এগারোটি মঙ্গলবার সন্ধেবেলায় হনুমানজির মূর্তির সামনে সর্ষের তেল দিয়ে প্রদীপ জ্বালান।

২. হনুমানজির সামনে প্রদীপ জেলেই তার পর হনুমান চাল্লিশা পাঠ করুন।

৩. এ দিন আমিষ খাবার না ছোঁয়াই ভালো।

৪. প্রতি মঙ্গলবার ঘুম থেকে উঠে স্নান করে শুদ্ধ বস্ত্র পরে ও রাম দূতায় নমো এই মন্ত্রটি একশো আটবার জপ করুন।

৫. এই এগারোটি মঙ্গলবারের মধ্যে রামায়ণ পাঠ শেষ করবেন।

৬. প্রতি মঙ্গলবার হনুমান যে সামনে লাড্ডু ভোগ হিসেবে নিবেদন করবেন এবং সেই ভোগ সকলের মধ্যে বিলিয়ে দেবেন।

কী কী ফল পাবেন দেখুন?

1. অনেকের রাশ হাল্কা তাই ভূতের ভয় বা প্রেতাত্মার কু প্রভাব পড়ে তাঁদের ওপর এ ক্ষেত্রে হনুমান চালিশা সাহায্য করে।

2. কারও বাড়িতে দোষ থাকলে বা শনির প্রভাবে গ্রহদোষ হলে তাঁর সহজে কাটতে চায় না এ ক্ষেত্রে হনুমান চালিশা এবং হনুমান ঠাকুরের পুজো অনেক কাজে আসে।

3. বাড়িতে ঢোকার আগেই পঞ্চমুখী হনুমানের ছবি রাখুন এবং প্রতিদিন ধূপ ধুনো দিয়ে পুজো দিন সংসারে কারও কু নজর পড়বে না।

4. কর্মক্ষেত্রে বাধা বা সাফল্য আটকে যায় অনেক সময় কিন্তু সেই বাধা দূর করতে হনুমান চল্লিশা পাঠ বিশেষভাবে সাহায্য করে।