সরকারি নির্দেশ অমান্য করেই হাওড়ায় খুলল বেসরকারি স্কুল

5
সরকারি নির্দেশ অমান্য করেই হাওড়ায় খুলল বেসরকারি স্কুল

করোনার জন্য দীর্ঘ প্রায় এক বছর ধরে স্কুল কলেজের পঠন পাঠন বন্ধ। ছাত্র-ছাত্রীদের পঠন-পাঠন চালিয়ে যাওয়ার জন্য এই মুহূর্তে বিকল্প রাস্তা হল অনলাইন ক্লাস। তবে সেই অনলাইন ক্লাসের সুবিধা-অসুবিধা নিয়েও ইতিপূর্বে বহু তরজা চলেছে। সবদিক বিবেচনা করে আগামী ফেব্রুয়ারি মাস থেকে উঁচু ক্লাস এবং কলেজের পঠন-পাঠন শুরু করার বিবেচনা করছে রাজ্য সরকার। তবে রাজ্যের বেশকিছু বেসরকারি স্কুল অবশ্য সরকারের নির্দেশের তোয়াক্কা করে না।

স্কুলে পঠন-পাঠন শুরু করার অনুমোদন এখনো দেয়নি রাজ্য সরকার। রাজ্য সরকারের নির্দেশ অনুসারে পরবর্তী সিদ্ধান্ত পর্যন্ত রাজ্যের সমস্ত সরকারি এবং বেসরকারি স্কুল বন্ধ থাকবে। তবে রাজ্য সরকারের এই নির্দেশ অমান্য করেই হাওড়ার শিবপুরের একটি বেসরকারি প্রাইমারি স্কুলের পঠন-পাঠন শুরু হয়ে গেল। ছাত্র-ছাত্রীদের রীতিমতো ক্লাসে ডেকে এনে পঠন-পাঠন শুরু করেছে ওই প্রাইমারি স্কুলটি।

শুধু তাই নয়, স্কুল কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে কোভিড বিধি অমান্য করার অভিযোগও উঠেছে। কারণ ওই স্কুলে পাঠরত পড়ুয়াদের কারোর মুখেই মাস্ক ছিল না। এমনকি ছাত্রছাত্রীদের মধ্যে সোশ্যাল ডিসট্যান্সও বজায় রাখা হয়নি। অভিভাবকদের যুক্তি, ছাত্র-ছাত্রীরা বাড়িতে বসে “বোর” হচ্ছে, তাই কয়েক ঘণ্টার জন্য তাদের স্কুলে পাঠানো হয়েছে। অপরপক্ষে স্কুল কর্তৃপক্ষের দাবি, অল্প সংখ্যক পড়ুয়াদের নিয়েই ক্লাস চালু করা হয়েছে।

হাওড়ার ব্যাঁটারাতেও গত বুধবার একদিনের জন্য একটি বেসরকারি প্রাইমারি স্কুল খুলে রাখা হয়েছিল। এই বেসরকারি স্কুল কর্তৃপক্ষের দাবি, তৃতীয় শ্রেণীর পড়ুয়াদের অংক এবং ইংরেজি পড়া বুঝতে অসুবিধা হচ্ছিল। তাই অভিভাবকদের আবেদনের ভিত্তিতেই ওই স্কুলের তৃতীয় শ্রেণীর কয়েকজন পড়ুয়াকে একদিনের জন্য স্কুলে ডেকে পাঠানো হয়। স্কুলের হলঘরে এদিন সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে, মাস্ক স্যানিটাইজার ব্যবহার করেই দেড় ঘন্টার জন্য স্কুলে এসে পড়া বুঝেছে পড়ুয়ারা, এমনটাই দাবি স্কুল কর্তৃপক্ষের।