দেওর নতুন পিস্তল কিনে বৌদিকে দেখাতে গিয়ে গুলিবিদ্ধ বৌদি

13
দেওর নতুন পিস্তল কিনে বৌদিকে দেখাতে গিয়ে গুলাবিদ্ধ বৌদি

মালদা,২৫মেঃ—দেওর নতুন পিস্তল কিনে বৌদিকে দেখাতে গিয়ে গুলিবিদ্ধ বৌদি। আর সে সময় অসাবধানতায় পিস্তলের টিগারে দেওরের আঙুল পড়ে যায়। গুলি লাগে সোজা বৌদির বুকে। আশঙ্কাজনক অবস্থায় রাতেই বৌদিকে ভর্তি করা হয় মালদা শহরের একটি বেসরকারী হাসপাতালে। তবে এখানে ওই বধূর বুক থেকে গুলি বের করতে পারেননি চিকিৎসকরা। বুধবার দুপুরে তাঁকে স্থান্তর করে দেওয়া হয়েছে কলকাতায়। কালিয়াচকের এই ঘটনায় দেওর সাইদুল্লা হককে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

গুলিবিদ্ধ ওই বধূর নাম সাহিবা খাতুন (১৮)। স্বামী সারিউল শেখ পেশায় ক্ষুদ্র ব্যবসায়ী। বাড়ি কালিয়াচক থানার নারায়ণপুর গ্রামে। এ ঘটনায় অভিযুক্ত দেওয়ার কে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ বন্দুক টি কোথা থেকে আসলো সেই বিষয়ে তদন্ত করে দেখা হচ্ছে।

বেসরকারী হাসপাতালের কর্ণধার, চিকিৎসক সত্যনারায়ণ শর্মা বলেন, ‘গুলিটি আহত বধুর বুকের ভিতরেই এখনও আটকে রয়েছে। আমরা এখানে যতটা সম্ভব, চিকিৎসা করেছি। কিন্তু আমাদের এখানে বুকের সার্জারি করার পরিকাঠামো নেই। তাই অন্যান্য চিকিৎসকদের সঙ্গে পরামর্শ করে তাঁকে কলকাতায় স্থান্তর করা হয়েছে। তবে ওই বধূ বর্তমানে স্থিতিশীল। উন্নত চিকিৎসায় তিনি সম্পূর্ণ সুস্থ হয়ে উঠবেন।