বাস্তু মেনে সাজান বাড়ি ঘর, সুস্থ থাকবে দেহ-মন

16
বাস্তু মেনে সাজান বাড়ি ঘর, সুস্থ থাকবে দেহ-মন

যা ইচ্ছে করছে তাই দিয়ে ঘর সাজাচ্ছেন। আপনি কি জানেন সমস্ত বস্তুর মধ্যেই কিছু না কিছু সমস্যা রয়েছে যেটা আপনার জীবনে অভাব ডেকে আনতে পারে। আসুন জেনে নেই সেই সমস্ত জিনিসের কথা। আমাদের ঘরকে আমরা নানান রকম জিনিস দিয়ে সাজাতে চাই যেটি আমাদের চোখে ভালো লাগে সেই জিনিসটাই আমরা ঘরে নিয়ে আসি ঘর সাজানোর জন্য ঘরকে আরও আকর্ষণীয় করার জন্য কিন্তু আমরা অনেকেই জানি না যে সমস্ত জিনিস দিয়ে আমরা ঘর সাজাতে সেই সমস্ত জিনিসের মধ্যেও এমন কিছু লুকিয়ে থাকে যা আমাদের জীবনে বিপদ ডেকে আনতে পারে।

যেমন ধরুন সিন্থেটিক পেইন্ট বা কোনরকম ইলেকট্রিক সামগ্রী। আমরা ঘরেতে এক ধরনের উচ্চ কম্পাংকের চুম্বক ব্যবহার করি যেটা বিকিরণ করে কিন্তু আমরা অনেকেই জনি না যে এই বিকিরণ কতটা ক্ষতিকর। শরীরের পক্ষে এগুলো থেকে গন্ধটা স্বাস্থ্যের ক্ষতি করে থাকে।

যে কার্পেটগুলো আমরা বাড়িতে সাজিয়ে রাখার জন্য আনি এই কার্পেটে বাসা বাঁধতে পারে জীবাণু তাই যদি আপনি কার্পেট ব্যবহার করেন তাহলে সে কার্পেট গুলোকে মাঝে মাঝেই ধোয়ার ব্যবস্থা করবেন এছাড়া, মাইক্রোওভেন, কম্পিউটার ব্যবহার করি সেগুলোতেও এক ধরনের যেটা আমাদের শরীরে রোগপ্রতিরোধের ক্ষমতাকে অনেক বেশি কমিয়ে দেয়।

প্লাস্টিক পেইন্ট এর ক্ষেত্রে বিষয়টা হলো বিয়ের কারণ এই প্লাস্টিক পেইন্ট এ এমন কিছু পদার্থ থাকে যা অনেক সময় শ্বাসরোধের কাজ করে। ধরুন আপনার ময়লা জমেছে সেই ময়লাটা যদি আপনি পরিষ্কার না করেন তাহলে যেমন আপনার শরীরের সমস্যা হবে তেমনি দেওয়ালে যদি প্লাস্টিকের মত এই পেইন্ট ব্যবহার করা হয় তাহলে বাড়ির ময়লাগুলো আটকে থাকবে কখনোই হাওয়া বাতাস ঘরে ঢুকতে পারবে না যার ফলে স্বাভাবিকভাবেই মানুষের দেহে তৈরি হতে পারে রোগ।

এইসব জিনিস বলে আজকাল আমাদের জীবনে অনেক প্রয়োজনীয় হয়ে দাঁড়িয়েছে তাই এগুলোকে আমরা কখনই চাইলেও জীবন থেকে ফেলে দিতে পারব না তবে এগুলো থেকে বাঁচার উপায় হলো একমাত্র গাছ বাড়ির আশে পাশে যেমন লাগান তেমনি এমন কিছু গাছপালা থাকে যেগুলো ঘরের ভেতরেও যদি আপনি লাগান তাহলে ঘরের পরিবেশ সুস্থ থাকবে। যেমন পিস লিলি, ফিকাস ইত্যাদি।