কোটি টাকার দেনা! মহেন্দ্র সিংহ ধোনিকে নোটিশ পাঠাল সুপ্রিম কোর্ট

4
কোটি টাকার দেনা! মহেন্দ্র সিংহ ধোনিকে নোটিশ পাঠাল সুপ্রিম কোর্ট

কোটি টাকার দেনা রয়েছে মহেন্দ্র সিংহ ধোনির মাথায়। ভারতের প্রাক্তন অধিনায়ক খেলাধুলার পাশাপাশি রয়েছে বিভিন্ন ব্যবসার সঙ্গে যুক্ত, যার মধ্যে অন্যতম হলো আবাসন নির্মাণ প্রকল্প। এই আবাসন নির্মাণ প্রকল্পের সঙ্গে যুক্ত থাকার কারণে বিপত্তি ঘটেছে তার জীবনে। বলে দি, আম্রপালি হাউসিং প্রকল্পের ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসেডর ছিলেন মহেন্দ্র সিং ধোনি। নয়ডা শহরে বিভিন্ন প্রকল্পের সঙ্গে কাজ করছিল এই সংস্থা। হাউসিং কম্প্লেক্স যে বড় বড় অট্টালিকা তৈরি হয়েছিল তার দায়িত্বে ছিলেন মহেন্দ্র সিং ধোনির এই সংস্থা। কিন্তু হঠাৎ করেই এই সংস্থার উপর সুপ্রিম কোর্ট নির্দেশ জারি করে দিলেন।

১৮০০ জন ফ্ল্যাট ক্রয় দাতাকে আগামী দুই সপ্তাহের মধ্যে পাওনা গন্ডা বুঝিয়ে দিতে হবে মহেন্দ্র সিং ধোনির কমপ্লেক্সকে। যদিও এই প্রকল্পের ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসেডর থেকে পদত্যাগ করেছিলেন ২০১৬ সালে মহেন্দ্র সিং ধোনি। তিনি নিজেও প্রকল্পের মধ্যে দুটি ফ্ল্যাট বুকিং করেছিলেন। ব্যবসা দেখাশোনার দায়িত্বে রয়েছেন চেয়ারম্যান অরুণ পান্ডে, যিনিও ওই প্রকল্পের ফ্ল্যাট বুকিং করেছিলেন।

এই প্রকল্পের তদারকি করার জন্য ASPIRE নামে একটি সংস্থা গঠন করা হয়েছিল, নয়ডা বাসীর স্বার্থের দিকে তাকিয়ে কুড়ি হাজার কোটি টাকা ব্যয় করে এই প্রকল্প নির্মাণের দায়িত্ব দেওয়া হয় আম্রপালি হাউসিং প্রকল্প সংস্থাকে। কিন্তু সময়মতো ফ্ল্যাট বুকিং কারীদের নির্দিষ্ট পাওনা বুঝিয়ে দিতে পারেনি এই সংস্থা। সুপ্রিম কোর্টে মামলা দায়ের করেন ফ্ল্যাট বুকিং কারীরা, যার ফলে নোটিশ পাঠানো হয় মহেন্দ্র সিংকে। ধোনির পাশাপাশি নোটিশ পাঠানো হয় অরুণ পান্ডেকেও।

প্রসঙ্গত, বর্তমানে আইপিএলের শেষ অংশের খেলার জন্য সুদূর আরবে রয়েছেন মহেন্দ্র সিং ধোনি। আগামী ১৯ তারিখে চেন্নাই সুপার কিংস মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সের মুখোমুখি হতে চলেছে।