খোলা পোশাকে পিঠের স্ট্রেচ মার্ক নিয়ে কটাক্ষের স্বীকার হলেন দেবলিনা কুমার

7
খোলা পোশাকে পিঠের স্ট্রেচ মার্ক নিয়ে কটাক্ষের স্বীকার হলেন দেবলিনা কুমার

সোশ্যাল মিডিয়ায় অভিনেতা-অভিনেত্রীদের কোনো না কোনো কারণে উপহাসের শিকার হতে হয়। অন্যতম অভিনেত্রী দেবলীনা কুমারকেও বহুবার উপহাসের শিকার হতে হয়েছে সোশ্যাল মিডিয়াতে। চলতি বছরের গোড়ার দিকে তিনি বিবাহ করেছেন উত্তম কুমারের নাতি গৌরব চট্টোপাধ্যায়কে। এক কথায় বলতে গেলে তিনি এখন উত্তম কুমারের বাড়ির নাত বউ। তিন ধর্ম অনুসারে তিনি বিবাহ করেছেন। বিবাহের ছবি এবং ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় দুরন্ত গতিতে ভাইরাল হয়েছিল, তার সাথে ভাইরাল হয়েছিল তাদের হানিমুনের বেশ কিছু ছবি।

বিবাহের বেশ কিছু মাস পরেও সোশ্যাল মিডিয়াতে তারা তাদের ব্যক্তিগত ছবি পোস্ট করেন মাঝে মাঝে। এমনই একটি রোমান্টিক ফটো পোস্ট করতে গিয়ে উপহাসের সম্মুখীন হতে হলো দেবলিনা কুমার কে। ভাইরাল হওয়া ছবিতে অভিনেত্রী পড়েছিলেন একটি খোলা টপ। আর ঠিক এই কারনে সমালোচনার মুখে পড়তে হলো তাকে। খোলামেলা পোশাকের অন্তরালে দেখতে পাওয়া যাচ্ছে তার পিঠের স্ট্রেচ মার্ক।

এই স্টেস মার্ক দেখে জনৈক নেটিজেন কমেন্ট করেন, যতদূর জানা আছে এই ধরনের দাগ তবেই শরীরে হয়। তাহলে এখনো পর্যন্ত মাতৃত্বের স্বাদ না পাওয়া দেবলিনার গায়ে কিভাবে এই দাগ এলো? প্রশ্ন করেছেন অনেকেই। পাশাপাশি অনেকেই হাস্যরসের মাধ্যমে অভিনেত্রীকে কটাক্ষ করেছেন। কিন্তু এই সমস্ত কটাক্ষের সঠিক জবাব দিতে সদাপ্রস্তুত দেবলিনা কুমার।

দীর্ঘদিন ধরে সমালোচনার সঙ্গে লড়াই করতে করতে কার্যত অভ্যস্ত হয়ে পড়েছেন তিনি। তাই শিখে গেছেন সপাটে জবাব দেওয়া। ব্যক্তিগত ছবির নিচে নেটিজেনদের কটাক্ষের স্পষ্ট জবাব দিতে দেখা গেল অভিনেত্রীকে। তারপরেই সমালোচকরা আস্তে আস্তে গুটিয়ে নিয়েছে নিজেদের। কিছুদিন আগেও দেবলিনা কুমার ফেসবুক লাইভে এসে একইভাবে সমালোচকদের তুলধোনা করেছেন। পূর্বে সমালোচকদের এড়িয়ে গেলেও বর্তমানে তিনি স্বস্তিকা চট্টোপাধ্যায় অথবা শ্রীলেখা মিত্রের পথ অবলম্বন করেছেন। স্পষ্ট কথায় কষ্ট নেই, এই কথা মেনে চলছেন তিনি ও।