চলন্ত ট্রেনের দরজায় দাঁড়িয়ে ছবি তুলতে গিয়ে বিপত্তি! ট্রেন থেকে পড়ে গিয়ে গুরুতর জখম এক

7
চলন্ত ট্রেনের দরজায় দাঁড়িয়ে ছবি তুলতে গিয়ে বিপত্তি! ট্রেন থেকে পড়ে গিয়ে গুরুতর জখম এক

উত্তরের অপরূপ প্রাকৃতিক সৌন্দর্যকে সাক্ষী রেখে ছবি তুলতে গিয়ে বিপত্তি । খোলা দরজা থেকে বাইরে ঝুঁকে ছবি তুলতে গিয়ে গুরুতর জখম হন এক পর্যটক। ট্রেন থেকে পড়ে গিয়ে কলকাতার বাগুইহাটির যুবক গুরুতর জখম।

সেবক স্টেশনের কাছে ঘটনাটি ঘটেছে। ঘটনাটির ভিডিওও প্রকাশ্যে এসেছে। ট্রেন থেকে পড়ে যাওয়ার পর আশঙ্কাজনক অবস্থায় যুবককে উদ্ধার করা হয়। এর পর ওই পর্যটককে শিলিগুড়িতে নিয়ে আসা হয়।

সেখানে একটি বেসরকারি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন তিনি। সূত্রের খবর, ওই যুবকের মাথায় গুরুতর চোট পেয়েছেন। তাঁর মাথায় অস্ত্রোপচারও করা হয় বলে খবর। ৭২ ঘণ্টা তাঁকে পর্যবেক্ষণে রেখেছেন দায়িত্বপ্রাপ্ত চিকিৎসকেরা। জানা যায়, বাগুইহাটির ওই যুবক শোভন বিশ্বাস, উত্তরবঙ্গে ডুয়ার্স বেড়াতে আসছিলেন। সঙ্গে ছিল আরও ২৫ জন।

ট্রেন শিলিগুড়ি স্টেশন ছেড়ে গুলমা স্টেশনের উদ্দেশ্যে এগোতেই ট্রেনের দরজা দিয়ে ঝুঁকে সেলফি তুলছিলেন, ভিডিও করছিলেন। গোটা ঘটনাটি মোবাইল ক্যামেরাতে রেকর্ডও হয়। সেখানেই ট্রেনের দরজা থেকে এতটাই ঝুঁকে পড়েন যে পোলে ধাক্কা খান তিনি। পোলে ধাক্কা খেয়েই ট্রেন থেকে পড়ে যান যুবক বলেই, দাবি শোভনের বন্ধুর।

চেন টেনে থামানো হয় ট্রেন। খবর পেয়ে ছুটে আসে আরপিএফ জওয়ানেরা। অল্পের জন্য প্রাণে রক্ষা পেয়ে যান তিনি। তবে গুরুতর জখম হন যুবক। মাথায় চোট আসে তাঁর। আপাতত তিনি শিলিগুড়ির বেসরকারি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন।

জানা যায়, যুবকের সঙ্গেই ভ্রমণ করছিলেন তাঁর দাদা-বৌদিও। দুর্ঘটনার খবর পেয়ে শিলিগুড়ির উদ্দেশে রওনা দিয়েছেন পরিবারের লোকপরিবারের লোক।