চীনা গুপ্তচরের নজরে দলাই লামা, প্রধানমন্ত্রী মোদি! সূত্র ভারতীয় গুপ্তচর সংস্থা

6
চীনা গুপ্তচরের নজরে দলাই লামা, প্রধানমন্ত্রী মোদি! সূত্র ভারতীয় গুপ্তচর সংস্থা

লাদাখে ভারত-চীন সীমান্তে প্রকৃত নিয়ন্ত্রণরেখায় উভয় প্রতিবেশী রাষ্ট্রের মধ্যে অশান্তির জেরে দীর্ঘ কয়েক মাস ধরে সীমান্ত উত্তেজনা অব্যাহত। এর ফলস্বরূপ ভারত এবং চীনের সম্পর্ক তলানিতে ঠেকেছে। ভারতীয় ভূখণ্ড আগ্রাসনে ইচ্ছুক চীন ইতিপূর্বে ভারতের বিরুদ্ধে বহু ষড়যন্ত্র করেছে। একে একে তাদের সেই ষড়যন্ত্রের কথা সামনে আসছে। ভারতীয় গুপ্তচর সংস্থা সূত্রে খবর, প্রধানমন্ত্রী দপ্তরের উপর গোপনে নজর রাখছিল চীন।

প্রধানমন্ত্রী দপ্তরের উপর নজর রেখে মোদির কার্যকলাপ সংক্রান্ত সমস্ত খবর হাতানোর চেষ্টা করছিল চীন। শুধু তাই নয়, বৌদ্ধ ধর্ম গুরু দলাই লামার সম্পর্কের একাধিক তথ্য হাতানোর চেষ্টা করেছে চীন। ভারতীয় গোয়েন্দা দপ্তরের তরফ থেকে এমনই চাঞ্চল্যকর তথ্য প্রকাশ করা হয়েছে। চীনের হয়ে ভারতের সমস্ত তথ্য হাতানোর চেষ্টা করছিল চীনা গুপ্তচর কিন শি। সম্প্রতি তাকে ভারতীয় গোয়েন্দা বাহিনীর হেফাজতে নেওয়া হয়েছে।

শিকে জেরা করে জানা গেছে, চীনের রাডারে রয়েছেন দলাই লামা, প্রধানমন্ত্রী মোদি। ভারতের আশ্রিত দলাই লামা সম্পর্কে সমস্ত যেমন তাঁর শারীরিক অবস্থা, কোন হাসপাতালে, কোন চিকিৎসকের কাছে তিনি চিকিৎসা করাচ্ছেন, পাশাপাশি তিনি কি কি ওষুধ খাচ্ছেন, কখন খাচ্ছেন সে সম্পর্কিত পুঙ্খানুপুঙ্খ খবরে নজর রাখছিলো চীন। আরে সমস্ত তথ্য চীনে পাচার করছিল কিন শি নামক ওই চীনা গুপ্তচর।

সবথেকে উদ্বেগজনক তথ্য হলো, ওই চীনা গুপ্তচর কলকাতায় বসবাসকারী এক মহিলার সঙ্গে যোগাযোগ রাখছিলেন। কোন এক ইংরেজি কাগজ চীনা ভাষায় অনুবাদ করে দেওয়ার জন্য ওই মহিলার সঙ্গে যোগাযোগ করেছিল শি। বর্তমানে ভারতীয় গোয়েন্দা বাহিনী ওই মহিলার খোঁজ চালাচ্ছে। পাশাপাশি প্রধানমন্ত্রীর দপ্তরের একাধিক উচ্চপদস্থ আধিকারিক এর সঙ্গে যোগাযোগ রাখার চেষ্টা করছিল শি। ভারতের সরকারি দপ্তরের খবরাখবর হাতানোর উদ্দেশ্যেই এমন কাজ করেছিল সে।