কঙ্গনার মণিকর্ণিকা ফিল্মস অফিসের পর ফ্ল্যাট ভাঙার ক্ষেত্রেও স্হগিতাদেশ কোর্টের

5
কঙ্গনার মণিকর্ণিকা ফিল্মস অফিসের পর ফ্ল্যাট ভাঙার ক্ষেত্রেও স্হগিতাদেশ কোর্টের

আজ বৃহৎ মুম্বাইয়ের পুরসভা অবৈধভাবে নির্মাণ কঙ্গনা রানাওয়াতের অফিস ভেঙে গুঁড়িয়ে দিয়েছে, এবার এখানেই শেষ না। কারণ আদালতের দ্বারস্থ হয়েছে বি এম সি, তারা সেখানে গিয়ে জানিয়েছে এবার অফিসের পর অবৈধভাবে তৈরী কঙ্গনার ফ্ল্যাটের নির্মাণ ভাঙতে। আসলে বি এম সির তরফ থেকে জানানো হয় কঙ্গনাকে গত ২ বছরে অনেকবার নোটিশ দেওয়া হয়েছে কিন্তু কোনোভাবেই তার কানে নেয় নি তিনি।

যে নোটিশ দেওয়া হয়েছিল সেখানে রদবদল করা হয়েছে, আর তারফলেই আদালতের থেকে ফ্ল্যাট ভাঙার স্হগিতাদেশ দেওয়া হয়। কারণ জানা গেছে অভিনেত্রীর অর্জিত ভিত্তিতেই এই স্হগিতাদেশ দেওয়া হয়। তবে এবার বি এম সি জানিয়েছে, আর অপেক্ষা কথা যায় না তাই স্হগিতাদেশ তুলে দেওয়া হোক। বিএম সি সেখানে বলেছে বারান্দা সহ, ব্যালকোনি ও নিয়ম ভেঙে ছাদ নির্মাণ করার কথাও বলেছে তারা। বিএম সি বলেছে মোট ৮ টি জায়গা পরিবর্তন করা হয়েছে। এদিকে রান্নাঘরও বেআইনিভাবে নিয়ম ভেঙে নির্মাণ করা হয়।

এদিকে দেখা যায় বিএম সি কঙ্গনা রানাওয়াতের মণিকর্ণিকা ফিল্মস অফিস ভেঙে গুঁড়িয়ে দেয়। যা নিয়েই এখন প্রশ্নের মুখে পরে তারা। কারণ আদালত ফের এর স্হগিতাদেশ জানায়। আর প্রশ্ন করে অবৈধ নির্মাণ ভাঙতে এত তাড়াহুড়ো কেন? যে কারণেই এবার আগামীকাল বৃহস্পতিবার আদালতে জবাব দিহির জন্য ডাকা হবে বি এম সিকে। এদিকে আবার কঙ্গনা মুম্বাই পৌঁছেই একহাত নেয় মুখ্যমন্ত্রী উদ্ধব ঠাকরের। কঙ্গনা একটি ভিডিও শেয়ার করে বলে, তোর কি মনে হয়, ফিল্ম মাফিয়াদের সাথে হাত মিলিয়ে আমার বাড়ি ভেঙে সেই বদলা নিয়েছিস?