পাঞ্জাব হরিয়ানা হাইকোর্টের নতুন রায়কে নিয়ে শুরু হল বিতর্ক

8
পাঞ্জাব হরিয়ানা হাইকোর্টের নতুন রায়কে নিয়ে শুরু হল বিতর্ক

পাঞ্জাব হরিয়ানা হাইকোর্ট এবার নতুন রায় দিল সাধারণ মানুষের ক্ষেত্রে। এর আগে বোম্বে হাইকোর্টের পকসো আইন নিয়ে যথেষ্ট বিতর্ক শুরু হয়েছে গোটা দেশজুড়ে। এইবার নতুন করে আবার বিতর্ক শুরু হলো পাঞ্জাব হরিয়ানা হাইকোর্টের নতুন রায়কে নিয়ে।

পাঞ্জাব হরিয়ানা হাইকোর্ট থেকে বলা হয়েছে যে, “কোন স্ত্রী যদি তার স্বামীকে খুন করে থাকে তাহলেও সেই স্ত্রী তার স্বামীর সরকারি পেনশন পাবে”। পাঞ্জাব হরিয়ানা এইরকম একটি রায় ঘোষণা হওয়ার পরই দেশজুড়ে দেখা দিয়েছে বিতর্ক।

খবর সূত্রে জানা গেছে যে পাঞ্জাবের আম্বালা এক বাসিন্দা প্রজেক্ট তিনি আদালতের কাছে একটি পিটিশন জমা দিয়েছিলেন এবং সেখানে তিনি জানিয়েছিলেন যে ২০০৮ সালে তার স্বামী কর্মরত অবস্থায় মারা যান। মামলা করা হয়েছে যে তার স্বামীকে খুন করেছেন তিনি । ২০১১ সালে তার স্বামীকে খুন করা মামলায় দোষী হিসেবে সাব্যস্ত হয় সে।

দোষী সাব্যস্ত হওয়ার আগে পর্যন্ত তার স্বামীর পেনশন সে পেত, কিন্তু যখন তিনি দোষী সাব্যস্ত হয় তারপরে পেনশন দেওয়া বন্ধ করে দেয় সরকার। এই জন্য ওই আদালতের দ্বারস্থ হয় বলজিৎ। ২৫ শে জানুয়ারি এই মামলাটির শুনানি হয় এবং যেখানে পাঞ্জাব এবং হরিয়ানার হাইকোর্ট ঘোষণা করে যে, “যে হাস সোনার ডিম পাড়ে সেই হাসকে কেউ মারতে চায় না। যদি স্বামীর মৃত্যু হয়ে থাকে অথবা স্বামীকে খুন করে থাকে তার স্ত্রী তাহলেও স্বামীর সরকারি পেনশন পাবেন কারণ এই ধরনের প্রকল্পটি ফ্যামিলি পেনশন। সরকারের এই জনকল্যাণমূলক কাজ পরিবারকে আর্থিক ভাবে সাহায্য করা। তাই যদি স্বামীকে মেরে কোনরকম দোষী সাব্যস্ত হয় তাহলেও সেই স্ত্রী পেনশন পাবে”।

হরিয়ানা এবং পাঞ্জাব সরকারকে হাইকোর্ট নির্দেশ দিয়েছে যে সমস্ত বকেয়া যে টাকা রয়েছে সেগুলি দু’মাসের মধ্যে মিটিয়ে দিতে হবে বলজিৎকে।