এক যুবকের জন্য দুই প্রেমিকার দ্বন্দ্ব! টস করে স্থির হল কে বিয়ে করবে ওই যুবককে

8
এক যুবকের জন্য দুই প্রেমিকার দ্বন্দ্ব! টস করে স্থির হল কে বিয়ে করবে ওই যুবককে

আজকাল ধারাবাহিকে একজন যুবকের দুটি স্ত্রী থাকা কোন আশ্চর্যের বিষয় নয়। বর্তমান জীবনেও এমন ঘটনা ঘটে যায় বহুবার। এমনই একটি ঘটনা ঘটে গেল কর্নাটকে। একই যুবকের সঙ্গে দুই যুবতী প্রেমের বন্ধনে আবদ্ধ হয়েছেন। কে বিয়ে করবে শেষ পর্যন্ত তা নিয়ে চলছে তুলকালাম কাণ্ড। অবশেষে সুরাহা করার জন্য এগিয়ে এলেন গ্রাম পঞ্চায়েত সদস্যরা। ঠিক করলেন, টসের মাধ্যমে ঠিক হবে কোন যুবতী ওই যুবককে বিয়ে করবে। শুনতে কিছুটা অবাক লাগলেও ঘটনাটি একেবারে সত্যি।

এটি সংবাদমাধ্যম সূত্র থেকে জানতে পারা গেছে, কর্নাটকের সকলেশপুর গ্রামে ২৭ বছর ওই যুবকের সঙ্গে পাশের গ্রামের একটি মেয়ের সঙ্গে পরিচয় হয়। দুজনের মধ্যে ঘনিষ্ঠতা বাড়ে। কিন্তু ঠিক ৬ মাস আগে অন্য একটি মেয়ের প্রেমে পড়েছিলেন ওই যুবক। একই সঙ্গে দুই জনের সঙ্গে প্রেম করছিলেন তিনি। কিন্তু কেউ ঘুণাক্ষরেও জানতে পারেনি গোটা ঘটনা।

এরই মাঝে ওই যুবককে প্রেমিকার সঙ্গে ঘুরতে দেখে আত্মীয় ওই যুবকের বাড়িতে সমস্ত ঘটনা জানায়। যুবকের বাড়ির লোক সম্পর্ক মেনে না নেওয়ায় অন্যত্র যুবকের বিয়ে দেওয়ার জন্য মনস্থির করেন। এদিকে খবর পেয়ে দুই প্রেমিকার বাড়ির লোকই ঘটনাস্থলে হাজির হয়ে যায়। গোটা ঘটনাটি সমস্ত গ্রামে চাউর হয়ে যায়। অবশেষে বিবাদ মেটাতে গ্রামের পঞ্চায়েত মাঠে নামেন।

সালিশি সভা ডেকে যুবককে জিজ্ঞাসা করা হয়, তিনি কি চান। কিন্তু ওই যুবক চুপ করে থাকেন। অন্যদিকে আবার যুবতীদের মধ্যে একজন আত্মহত্যা করার চেষ্টা করেন, যদিও শেষ পর্যন্ত বেঁচে যান তিনি। সালিশি সভায় গ্রাম পঞ্চায়েত সদস্যরা অবশ্য ঠিক করেন, টস করে স্থির করা হবে কে বিয়ে করবে ওই যুবককে। এছাড়া আর কোনো রাস্তা নেই।

এরপর নাকি টসের মাধ্যমে ঠিক করা হয়, প্রথম প্রেমিকাকেই বিয়ে করবেন ওই যুবক। অপর প্রেমিকা বিষয়টি হাসিমুখে মেনে নিলেও ওই যুবককে তার কৃতকর্মের জন্য অনেকে ভর্ৎসনা দিয়েছেন।