ভারত-চীন সীমান্ত থেকে অপহৃত পাঁচ ভারতীয় কিশোরকে ভারতীয় সেনাবাহিনীর হাতে তুলে দিলো চীনা আর্মি

6
ভারত-চীন সীমান্ত থেকে অপহৃত পাঁচ ভারতীয় কিশোরকে ভারতীয় সেনাবাহিনীর হাতে তুলে দিলো চীনা আর্মি

অপেক্ষার অবসান! অবশেষে সমস্ত জল্পনা এড়িয়ে অরুণাচল প্রদেশের ভারত-চীন সীমান্ত থেকে অপহৃত পাঁচ ভারতীয় কিশোরকে ভারতীয় সেনাবাহিনীর হাতে তুলে দিলো চীনের পিপলস লিবারেশন আর্মি। ভারতের কেন্দ্রীয় মন্ত্রী কিরন রিজিজু জানিয়েছেন, অপহৃত কিশোরদের আনতে সীমান্ত পেরিয়ে চীনে পৌঁছেছিলেন ভারতীয় সেনারা। শনিবার সকালে চীনা ভূখণ্ডে ওই পাঁচ কিশোরকে ভারতীয় সেনার হাতে তুলে দিয়েছে চীন। এবার শুধু বাড়ি ফেরার পালা।

কেন্দ্রীয় মন্ত্রী আরও জানিয়েছেন, অরুণাচল প্রদেশের কিবিথু বর্ডার পোস্ট দিয়ে ওই পাঁচ কিশোরকে নিয়ে ফিরছেন ভারতীয় সেনা জওয়ানরা। উল্লেখ্য, সীমান্ত পেরিয়ে চীনের ভূখণ্ড অনুপ্রবেশ করার অপরাধে ভারত চীন সীমান্তে অবস্থিত অরুণাচল প্রদেশের আপার সুবানসিরি জেলার নাচো এলাকা থেকে দুমতু ইবিয়া, প্রসাদ রিংলিং, নাগারু ডেরি, তোচ সিংকম ও তানু বাকর নামের পাঁচ কিশোরকে অপহরণ করে চীনের লাল ফৌজ।

গত সপ্তাহের শুক্রবার সকালে শিকারে বেরিয়ে কিশোরদের দলটি চীনা সৈন্য বাহিনীর মুখোমুখি পড়ে যায়। এদের মধ্যে দুজন কোনোরকমে চিনা সেনার নজর এড়িয়ে পালাতে সক্ষম হয়। তারাই ফিরে এসে অপহৃত কিশোরদের পরিবারে সমস্ত ঘটনা জানায়। এরপর থেকেই অপহৃত কিশোরদের পরিবার সোশ্যাল মিডিয়ায় সরকারের কাছে চীনের কবল থেকে কিশোরদের মুক্ত করে আনার দাবি জানাতে থাকে।

ঘটনা প্রকাশ্যে আসতেই, নড়েচড়ে বসে প্রশাসন। সীমান্তরক্ষী বাহিনী হটলাইনে চীনের সেনাবাহিনীর সাথে যোগাযোগ করতে শুরু করে। চীনা সেনাবাহিনীও স্বীকার করে নেয়, ওই পাঁচ কিশোর তাদের হেফাজতেই রয়েছে। গতকাল কেন্দ্রীয় মন্ত্রী কিরন রিজিজু আশ্বাস দিয়ে জানিয়ে ছিলেন, অপহৃত পাঁচ ভারতীয় কিশোরকে মুক্তি দেওয়ার জন্য প্রয়োজনীয় নথিপত্র তৈরি করছে চীন। এরপর প্রতিশ্রুতি মতোই শনিবার সকালে ভারতীয় সেনাবাহিনীর হাতে তুলে দেওয়া হয় ওই পাঁচ কিশোরকে।