চীনের অর্থনীতিতে ফের বড়সড় ধাক্কা! দিওয়ালিতে চীনা পণ্য বয়কটের সিদ্ধান্ত ভারতীয় ব্যবসায়ীদের

13
চীনের অর্থনীতিতে ফের বড়সড় ধাক্কা! দিওয়ালিতে চীনা পণ্য বয়কটের সিদ্ধান্ত ভারতীয় ব্যবসায়ীদের

লাদাখে চীনের পিপলস লিবারেশন আর্মির সদস্যদের কার্যকলাপে ক্ষুন্ন ভারতবাসী। চীনের ভারতীয় ভূখণ্ড দখলের প্রচেষ্টার বিরুদ্ধে একজোট হয়েছেন দেশের ব্যবসায়ীরা। দেশজুড়ে উঠেছে চীনা পণ্য বয়কটের ডাক। সেই বয়কট আন্দোলনে সামিল হয়েছেন দেশের ব্যবসায়ীরা। এর ফলে বিগত কয়েক মাসে চীনকে বিপুল পরিমাণে ক্ষতির সম্মুখীন হতে হয়েছে।

দুর্গোৎসবের পর এবার দেশজুড়ে ভারতবাসী দিওয়ালি উৎসবে মেতে উঠবে। উৎসব উপলক্ষে প্রতিবছর দেশজুড়ে প্রায় ৭০ হাজার কোটি টাকার পণ্য কেনা-বেচা চলে। যার মধ্যে প্রায় ৪০ হাজার কোটি টাকার পণ্য আসে চীন থেকে। কিন্তু বর্তমান পরিস্থিতিতে ভারত এবং চীনের মধ্যে সম্পর্ক যে জায়গায় গিয়ে পৌঁছেছে, সে দিক বিবেচনা করে ভারতীয় ব্যবসায়ীরা ঠিক করেছেন, এবছর তারা চীন থেকে কোন পণ্য আমদানী করবেন না।

ফলে, ভারতের তরফ থেকে চীনের অর্থনীতি আবারও বেশ বড়সড় ধাক্কা খেতে চলেছে। ব্যবসায়ীরা দৃঢ় প্রতিজ্ঞ, চলতি বছরের দিওয়ালি উৎসব উপলক্ষে তারা চীন থেকে কোনো পণ্য কেনা-বেচা করবেন না। দেশীয় ব্যবসায়ীদের সংগঠন “কনফেডারেশন অফ অল ইন্ডিয়া ট্রেডার্স ” এর পক্ষ থেকে এই সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়েছে। সংস্থা সূত্রে খবর, চীন থেকে প্রতিবছর প্রচুর পরিমাণে সোনা-রুপার গহনা, প্রদীপ, মোমবাতির মূর্তি আমদানি করা হয়। এবছর তার বদলে দেশীয় পণ্যের উপর গুরুত্ব দেওয়া হবে।

প্রধানমন্ত্রীর আত্মনির্ভর ভারত গঠনের পক্ষে আরও একধাপ এগিয়ে গেল “কনফেডারেশন অফ অল ইন্ডিয়া ট্রেডার্স”। কর্তৃপক্ষ সূত্রে খবর, দিওয়ালির বহু আগে থেকেই এ বিষয়ে উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়েছে। দেশের ছোট ছোট শিল্প সংস্থা এবং যুবকদের এ বিষয়ে প্রশিক্ষণ দিয়ে পণ্য উৎপাদনে উৎসাহিত করে তোলা হচ্ছে। দোকানদাররাও বর্তমানে ব্যবসার ক্ষেত্রে দেশীয় পণ্য বিক্রয়ের দিকেই ঝুঁকছেন।