চীন ও পাকিস্তান একত্রিত হামলা চালাতে পারে ভারতের উপর, বিপদ ও মোকাবিলা নিয়ে মুখ খুললেন সেনাপ্রধান

4
চীন ও পাকিস্তান একত্রিত হামলা চালাতে পারে ভারতের উপর, বিপদ ও মোকাবিলা নিয়ে মুখ খুললেন সেনাপ্রধান

চীন ও পাকিস্তান এখন একত্র, তাদের বিভিন্ন পরিকল্পনা ভারতের বিপক্ষে, যখন তখন ভারতের ওপর হামলা চালাতে পারে তারা। কিন্তু ভুলে গেলে হবে না ভারত ও তাদের উপযুক্ত জবাব দিতে একেবারে প্রস্তুত। সম্প্রতি এই বিষয় নিয়ে মুখ খুললেন সেনাপ্রধান এম এম নারাভানে, গত মঙ্গলবার সেনা দিবস উপলক্ষে এই সমস্ত বিপদ ও মোকাবিলা নিয়ে মুখ খুললেন সেনাপ্রধান। সেখানে সাংবাদিক বৈঠকে তিনি বলেছেন, আসলে চীন ও পাকিস্তান এদের তিনি পেটেন্ট থ্রেট হিসেবেই দেখেন। দিনের-পর-দিন চীন ও পাকিস্তানের একে অপরের মধ্যে যে হারে সহযোগিতা বৃদ্ধি পাচ্ছে, সেটা দেখে কোনভাবেই সংঘর্ষের কথা উড়িয়ে দেওয়া যায় না।

সেনাপ্রধান গতবছরের আক্রমণ নিয়ে কথা বলেছেন, গত বছর আমরা কথা বলে চ্যালেঞ্জ মোকাবেলা করেছি, আমাদের দেশের সেনারা সবথেকে দারুন ভাবে প্রস্তুত সবকিছুর মোকাবিলা করার জন্য। ইতিমধ্যে দেশের উত্তর প্রান্তে উচ্চপর্যায়ে সর্তকতা জারি করা রয়েছে। পূর্ব লাদাক নিয়ে যে অশান্তি শুরু হয়েছে গত বছর থেকে, তার সমাধান খুঁজছে ভারত। ইতিমধ্যে দফায় দফায় বৈঠক হয়েছে। ভারতের প্রধান লক্ষ্য আলোচনার মাধ্যমে এসব কিছুর সমাধান করা আশা করা যাচ্ছে এই নিয়ে সমঝোতায় আসতে পারবে ভারত।

গত কয়েকদিনের মধ্যেই ভারতীয় সেনাপ্রধান এমএম নারাভানে বিভিন্ন দেশের সেনা প্রধানের সাথে দেখা করেছেন এবং বৈঠক করেছেন। মায়ানমার দক্ষিণ কোরিয়া ভিয়েতনাম সৌদি আরবসহ আরো বিভিন্ন দেশের। মোটকথা সেনাপ্রধান বিশ্বাস করেন যুদ্ধের প্রযুক্তিগত বদল করাটা খুবই জরুরী। এখন কামান ট্যাংক যুদ্ধবিমান থাকলেই যুদ্ধ করা যাবে না এর সাথে যুক্ত হয়েছে প্রযুক্তি যা সেনাবাহিনীর মধ্যে রাখা হয়েছে। ডাটা ট্রান্সফার থেকে শুরু করে কম্পিউটারের বিভিন্ন সফটওয়্যার মাধ্যমে বিপক্ষ দলের অবস্থান সম্পর্কে অবগত হওয়া যাবে সহজে।