পুজার আগে ক্লাব গুলির অনুদান বাড়িয়ে দিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়

7
পুজার আগে ক্লাব গুলির অনুদান বাড়িয়ে দিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়

এবার দুর্গা পুজার আগে আরও একটি বড় সড়ক ঘোষণা করলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। পুজো কমিটিগুলির সঙ্গে সমন্বয়ে বৈঠকে তিনি করলেন এই ঘোষণা। এদের নেতাজি ইনডোর স্টেডিয়ামে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ঘোষণা করেন, প্রত্যেকটি পুজো কমিটিকে দেওয়া হবে ৬০ হাজার টাকা করে অনুদান। গত দুবছর যে অর্থের মূল্য ছিল ৫০০০০ টাকা তা এই বছর আরও দশ হাজার টাকা বাড়িয়ে দিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

এছাড়াও গতবছর ইলেকট্রিক বিলে ৫০ শতাংশ ছাড় দেওয়া হয়েছিল তা বাড়িয়ে এবার করে দেওয়া হলো ৬০ শতাংশ ছাড়। রাজ্য বিদ্যুৎ পর্ষদের কাছে এদিন সমন্বয়ে বৈঠকের মঞ্চ থেকেই অনুরোধ জানান মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। রাজ্য সরকারের আর্থিক অবস্থা যে ভালো নয় তা বেশ কয়েক মাস ধরেই বৈঠকে বলছিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এদিনও একই কথা বলে তিনি বলেন, এবার কিন্তু আপনাদের টাকা দিতে হবে। কেন্দ্রীয় সরকার টাকা দিচ্ছে না ফলে ১০০ দিনের কাজের টাকা বকেয়া পড়ে আছে। এছাড়া বিভিন্ন সরকারি প্রকল্পের বরাদ্দ ছাটাই করা হচ্ছে।

তবে এত কিছুর মধ্যেও পুজোর জন্য ভাড়ার শূন্য করেও তিনি সকলের ভাঁড়ার পূর্ণ করার কথা জানিয়েছেন। মুখ্যমন্ত্রী জানিয়েছেন, রাজ্যে রেজিস্টার্ড পুজো সংখ্যা ৪০ হাজার ৯২ টি। এই সব কটি পূজা কমিটিকে রাজ্য সরকারের পক্ষ থেকে ষাট হাজার টাকা করে দেওয়া হবে। অর্থাৎ রাজ্য সরকারের খরচ হবে ২৪০ কোটি ৫৫ লক্ষ ২০ হাজার টাকা। ইউনেস্কোর আবহমান ঐতিহ্য শিরোপা পাওয়ার পর কলকাতা শহরের প্রথম পুজো এটি।

এর আগে মুখ্যমন্ত্রী ঘোষণা করেছিলেন যে পয়লা সেপ্টেম্বর মিছিল করে এই উৎসব উদযাপন করা হবে কলকাতা জুড়ে, সে কথা আরো একবার বৈঠকে মনে করিয়ে দেন তিনি। ১লা সেপ্টেম্বর দুপুর দুটোর সময় জোড়াসাঁকো ঠাকুরবাড়ি থেকে শুরু হবে মিছিল। এছাড়া হবে পুজো কার্নিভাল যা গত দুবছর করা সম্ভব হয়নি। ৮ অক্টোবর কলকাতার রেড রোডে হবে কার্নিভাল। জেলার কার্নিভাল হবে সাত অক্টোবর।