মালদা জেলায় প্রশাসনিক বৈঠক করলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়

13
মালদা জেলায় প্রশাসনিক বৈঠক করলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়

মালদা,৮ ডিসেম্বর : মালদা জেলায় প্রশাসনিক বৈঠক করলেন বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। প্রায় ২৯৮ কোটি টাকা ব্যয়ে ৩৭ টি প্রকল্পের উদ্বোধন, ৪৫৯ কোটি টাকায় ৫৯ টি প্রকল্পের শিলান‍্যাস করেন তিনি। উপস্থিত ছিলেন, রাজ্যের প্রতিমন্ত্রী সাবিনা ইয়াসমিন, জেলাশাসক রাজর্ষি মিত্র, পুলিশ সুপার অলক রাজোরিয়া সহ বিভিন্ন দপ্তরের সচিব, বিধায়ক, বিভিন্ন থানার ওসি আইসি এবং জনপ্রতিনিধিরা।

ট্রেনেই সোমবার সন্ধ্যায় মালদায় পৌছেছিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। মালদায় থেকে গৌড়বঙ্গের প্রশাসনিক কর্মসূচিতে অংশ নেন তিনি। রাত্রিযাপন করেন পুরাতন মালদার মহানন্দা ভবনে। মঙ্গলবার উত্তর দিনাজপুরের কর্ণজোড়ায় উত্তর ও দক্ষিণ দিনাজপুর দুই জেলার আধিকারিক ও জনপ্রতিনিধিদের নিয়ে প্রশাসনিক বৈঠক করেন।

বুধবার দুপুরে মালদা কলেজ অডিটরিয়ামে জেলার প্রশাসনিক কর্মকর্তা এবং জনপ্রতিনিধিদের নিয়ে বৈঠক করেন তিনি। মুখ্যমন্ত্রীর হাত ধরে এদিন জেলায় ৩৭ টি প্রকল্পের উদ্বোধন এবং ৫৯ টি প্রকল্পের শিলান্যাস করা হয়। জন্ম থেকে মৃত্যু বিভিন্ন প্রকল্প সুবিধা মানুষ পাচ্ছিনা তা নিয়ে তিনি প্রশ্ন করেন বিভিন্ন ব্লকের বিডিও কে। জেলার উন্নয়নে কি কি প্রকল্প প্রয়োজন তা তিনি জানতে চান জেলাশাসক এবং অন্যান্য আধিকারিকদের কাছে।

তিনি সাফ জানিয়ে দেন সাধারণ মানুষকে পরিষেবা দিতে হবে। গরিব মানুষ যাতে কোনো প্রকল্প থেকে বঞ্চিত না হয়। জানুয়ারি থেকে আবার শুরু হবে দুয়ারের সরকার। প্রশাসনিক বৈঠকের মঞ্চ থেকে মালদা জেলার নেতা নেত্রীদের গোষ্ঠী কোন্দল বার্তা দেন তিনি।

মালদা মার্চেন্ট চেম্বার অব কমার্সের সম্পাদক জয়ন্ত কুন্ডুর কাছে তিনি জানতে চান হরিশ্চন্দ্রপুর এবং চাচলে মাখনা চাষে কি পদক্ষেপ নিলে হাজার হাজার মানুষ উপকৃত হবে।
এর পাশাপাশি মালদা জেলার সাংবাদিকদের পক্ষ থেকে মুখ্যমন্ত্রীর হাতে আমসত্ত্ব এবং রসকদম্ব মিষ্টি তুলে দেওয়া হয়।
আবাস যোজনার মাধ্যমে সাংবাদিকদের ঘরের দাবি খতিয়ে দেখার আশ্বাস দেন তিনি।
বৈঠক শেষে হেলিকপ্টারে চেপে মুর্শিদাবাদের বহরমপুরের উদ্দেশ্যে রওনা দেন তিনি।
সেখানে প্রশাসনিক বৈঠক করবেন তিনি।
এরপর তিনি কলকাতার উদ্দেশ্যে রওনা দিবেন বলে সূত্রের খবর।