মানুষের সঙ্গে মুরগির অটুট বন্ধুত্ব! জানুন

12
মানুষের সঙ্গে মুরগির অটুট বন্ধুত্ব! জানুন

মানুষের সঙ্গে পশুদের সম্পর্ক অনেক দিনের পুরনো। বরাবরই মানুষের সঙ্গে পশুদের সম্পর্ক অথবা বন্ধুত্ব হয়ে রয়েছে। প্রাচীনকাল থেকেই যখন মানুষ আদিম জীবন যাপন করত তখন থেকেই মানুষের সঙ্গ দিচ্ছে এই সমস্ত পশু পাখি। মানুষের সঙ্গে পশু পাখিদের বন্ধুত্বের কথা যখন বলা হয় তখন সবার আগে মানুষের সঙ্গে কুকুরের সম্পর্কের কথা বলা হয় কিন্তু আজ আমরা একজন মানুষের সঙ্গে মুরগির অটুট বন্ধুত্বের কথা বলতে চলেছি।

ছত্রিশগড়ের সুদামা নগরের মহেশ দেবাঙ্গন নামের এক ব্যক্তির কাছে দীর্ঘদিন ধরে একটি ছোট্ট দেশী মোরগ প্রতিপালিত হয়েছে। বহুদিন আগে ছোট্ট অবস্থায় এই মোড়গকে পেয়েছিলেন ওই ব্যক্তি। প্রথমে ভেবেছিলেন সেটি বড় হলে বিক্রি করে কিছু টাকা উপার্জন করবেন কিন্তু সময়ের সাথে সাথে মুরগির সঙ্গে অটুট বন্ধুত্ব তৈরী হয়ে যায় তার। সঠিক সময় আসার পরেও সেই দেশি মুরগিকে আর বিক্রি করতে পারেননি মহেশ। রাস্তার কুকুর থেকে শুরু করে মানুষ কারোর সাহস নেই ওই মুরগিকে টপকে মহেশের বাড়িতে ঢুকতে পারবে।

দিনরাত মহেশের বাড়িতে প্রহরীর মতো পাহারা দিচ্ছে ওই মুরগি। যাকে নিয়ে এত কথা সেই মুরগির নাম বাহাদুর। গোটা বাড়ির পাহারাদার সে। এখানে দেশি মুরগির এমন দাপট যে সারা এলাকার মানুষ রীতিমত ভয় পেয়ে থাকে সেই মুরগিকে। এমন ভালো বন্ধু, যার থাকে তার আর ভয় কিসের।

 মহেশ সেই দেশি মুরগিকে আর বিক্রি করতে পারেননি। রাস্তার কুকুর থেকে শুরু করে মানুষ, কারও হিম্মত নেই এই মরগিকে টপকে মহেশের বাড়িতে ঢোকে!