ব্রিটিশ ক্রিকেটার বেন স্টোকস কে কুরুচিকর মন্ত্যব্য করে বিতর্কে জড়ালেন ক্যারিবিয়ান মার্লন স্যামুয়েলস

7
ব্রিটিশ ক্রিকেটার বেন স্টোকস কে কুরুচিকর মন্ত্যব্য করে বিতর্কে জড়ালেন ক্যারিবিয়ান মার্লন স্যামুয়েলস

ব্রিটিশ ক্রিকেট খেলোয়াড় বেন স্টোকস এবং ক্যারিবিয়ান খেলোয়াড় মার্লন স্যামুয়েলসের মাঝের শত্রুতা সর্বজনবিদিত। কিন্তু এবার সোশ্যাল মিডিয়ায় তাদের ঝগড়া তা সমস্ত সীমা অতিক্রম করে গেল। ক্রিকেট দুনিয়ার সঙ্গে জড়িত তাবড় তাবড় ক্রিকেটাররা এই মুহূর্তে সোশ্যাল মিডিয়ায় তাদের মন্তব্য ঘিরে সমালোচনা করছেন। বিশেষত বেনের প্রতি মার্লনের একটি মন্তব্যের বিরোধিতা করছেন সকলেই।

সূত্রের খবর, রাজস্থান রয়েলসের হয়ে আইপিএল ক্রিকেট লীগে অংশগ্রহণ করার জন্য আরব আমিরশাহীতে উপস্থিত হয়েছেন বেন স্টোকস। মহামারী সংক্রান্ত নিয়ম অনুযায়ী, আগে সাত দিনের কোয়ারেন্টাইনে থাকতে হয়েছে তাকে। তারপর মাঠে খেলার জন্য নামতে পেরেছেন তিনি। নিজের সেই অভিজ্ঞতার কথাই বলছিলেন বেন স্টোকস। সাক্ষাৎকার দিতে গিয়ে তিনি বলেন, কোয়ারেন্টাইনে বন্দি হয়ে থাকা চরম দুঃসহ অভিজ্ঞতা তার কাছে।

নিতান্তই সাধারণভাবে তিনি বলেছিলেন, নিজের চরম শত্রুর জন্যেও এহেন বন্দীদশার শাস্তি কখনো চাইবেন না তিনি। নিতান্ত মজার ছলেই তিনি বলেছিলেন, তার ভাই তাকে মেসেজ করে জানতে চেয়েছেন, কোয়ারেন্টাইনের এহেন শাস্তি তিনি তার চরম শত্রু মার্লন স্যামুয়েলসের জন্য চাইবেন কি না। তার উত্তরে তিনি বলেছেন, তিনি এরকম শাস্তি স্যামুয়েলসের জন্য কখনই চাইবেন না।

এর পরিপ্রেক্ষিতে মার্লন স্যামুয়েলস বেন স্ট্রোকের প্রতি কুরুচিকর মন্তব্য করে বসলেন। তিনি বলেছেন, কোনো শ্বেতাঙ্গ ক্রিকেটার কখনো তাকে হারাতে পারেনি। এমনকি বেনের স্ত্রীকে জড়িয়ে তার মন্তব্য, “তোমার স্ত্রীকে ১৪ দিনের জন্য পাঠিয়ে দাও, ১৪ সেকেন্ডে জামাইকান করে দেবো”! স্যামুয়েলসের এই মন্তব্যে বিরোধিতা করেছেন মাইকেল ভন, শ্যেন ওয়ার্নসহ বহু ক্রিকেটার। এদের মধ্যে শ্যেন বলেন, স্যামুয়েলসকে ডাক্তার দেখানো দরকার।

স্যামুয়েলসকে কটাক্ষ করে তিনি আরো বলেন, সাধারণ মানের ক্রিকেটার হওয়া মানেই যে নিম্ন রুচি সম্পন্ন মানুষ হতে হবে, এমনটা নয়। এর পরিপ্রেক্ষিতে অশ্রাব্য ভাষায় শ্যেনকে আক্রমণ করে স্যামুয়েলসের বক্তব্য, “যিনি নিজেকে তরুণ দেখানোর জন্য মুখের সার্জারি করিয়েছেন, তিনি নাকি আবার আমাকে জ্ঞান দিতে আসছেন”। মোটকথা বেন এবং স্যামুয়েলসের ঝগড়াকে কেন্দ্র করে এখন সরগরম ক্রিকেট দুনিয়া।