ঝাল খেতে পারেন? জানুন পাকা লংকা খাওয়ার উপকারিতা

24
ঝাল খেতে পারেন? জানুন পাকা লংকা খাওয়ার উপকারিতা

লঙ্কা খেতে পারেন না? সবকিছুতেই মিষ্টি খোঁজেন? ঝাল খেলে চোখ দিয়ে জল বেরোয়? যেকোনো বিষয়ে ঝাল রান্না এড়িয়ে চলেন? তাহলে হয়তো জীবনের সবথেকে বড় ভুল করছেন। কারণ লাল লঙ্কা আপনাকে অকাল মৃত্যুর হাত থেকে বাঁচিয়ে দিতে পারে। এই লাল লঙ্কা যদি আপনি নিয়মিত খান, তাহলে ক্যান্সারসহ একাধিক কার্ডিওভাসকুলার ডিজিজের সম্ভাবনা কমে যায় আপনার জীবনে। সম্প্রতি একটি গবেষণায় এই তথ্য উঠে এসেছে। গবেষণা থেকে জানতে পারা গেছে, যারা প্রতিদিন লাল লঙ্কা খান, তাদের শরীরে কোনো রকম রোগ বাসা বাঁধতে পারে না।

গবেষকদের মতে, লঙ্কার মধ্যে থাকা ক্যাপসাইসিন এর অ্যান্টি ইনফ্লেমেটরি উপাদান আপনার খাবার স্পাইসি ফ্লেবার যোগ করে। এই উপাদান আপনার শরীরে খুবই গুরুত্বপূর্ণ একটি কাজ করে। আপনার শরীরে থাকা যেকোনো টিউমারের বৃদ্ধি আটকে দিতে পারে। এছাড়া রক্তে গ্লুকোজের মাত্রা নিয়ন্ত্রণে রাখে। এই বিষয়টি নিশ্চিত করার জন্য বিশ্বের নানা প্রান্তের মধ্যে প্রায় ৫,৭০,০০০ জনের মধ্যে এই পরীক্ষা করে দেখা হয়েছে।

অবশেষে সেই গবেষণা থেকে জানা গেছে যে, যথাযথ পরিমাণে লাল লঙ্কার সত্যিই একটি গুরুত্ব রয়েছে শরীরে।এইসবের পাশাপাশি গবেষকরা একটি বিষয় নিয়ে সকলকে সতর্ক থাকতে বলেছেন। গবেষকদের মতে, যেকোনো গবেষণাতে সবকিছু নিখুঁত হওয়া অসম্ভব। ব্যক্তি বিশেষে সমীক্ষা করা হলেও, প্রত্যেকে শরীর এবং উপলব্ধি একেবারেই আলাদা। তাই কোন লঙ্কা তে কি গুরুত্বপূর্ণ উপাদান রয়েছে, তা পৃথকভাবে জানার জন্য সবিস্তার একটি গবেষণার অবকাশ রয়েছে।

পাশাপাশি এটাও সুনিশ্চিত করতে হবে যে, একটি সুস্থ মানুষের দিনে কত পরিমান লঙ্কা খাবার প্রয়োজন।সম্প্রতি ডেইলি মেইলের এক প্রতিবেদনে এই বিষয়ে জল্পনা আরো কয়েক ধাপ বাড়িয়ে দিয়েছে। প্রতিবেদন থেকে জানা যায়, সাধারণত এই ধরনের সবজি খুব একটা খেতে পছন্দ করেন না ব্রিটিশরা। তবে দীর্ঘ লকডাউনের মধ্যে তাদের মধ্যে লঙ্কা খাওয়ার প্রবণতা বেড়ে গেছে। বেশিরভাগ মানুষ এই সময়ে গৃহবন্দি থাকার কারণে খাবার নিয়ে নানা ধরনের এক্সপেরিমেন্ট চলছে। চিকিৎসক এবং বিশেষজ্ঞদের মতে, এই লকডাউন পিরিওডে নিজেদের খাদ্য তালিকা কে আরও সমৃদ্ধ করা, লংকা এবং অন্যান্য পুষ্টিকর সবজি খাবার একেবারে উপযুক্ত সময়।

পাশাপাশি তারা এও জানিয়েছেন যে,শুকনো লঙ্কা খাবারের স্বাদ বাড়ানোর পাশাপাশি শরীরে নুনের চাহিদা কমিয়ে দেয়। প্রচুর পরিমাণে নুন খেলে ব্লাড প্রেসারে সম্ভাবনা থাকে। এক্ষেত্রে লঙ্কা সেই চাহিদা কমিয়ে দিয়ে রোগের সম্ভাবনা কমিয়ে দেয়।এছাড়া প্যাকেটজাত মসলা থেকে আমাদের দূরে থাকতে হবে। নিয়মিত মাত্রায় লাল লঙ্কা খেলে হৃদরোগ এবং ক্যান্সারজনিত যেকোনো রোগের ঝুঁকি অনেকটা কমে যায়। তাদের মাথায় রাখতে হবে যে, এই গবেষণার দ্বারা লঙ্কার ভালো গুন গুলি কে তুলে ধরা হয়েছে। তার মানে এই নয় যে, অত্যাধিক পরিমাণে লঙ্কা খেলে মানুষ দীর্ঘদিন বেঁচে থাকবেন। তাই প্রতিদিন নিয়মিত লঙ্কা খাওয়া যেতে পারে, তারে কোন কিছু অত্যধিক খাওয়া ভালো নয়।