মতুয়া সম্প্রদায়ের ভোট পেতে মরিয়া বিজেপি এবং তৃণমূল উভয়ই

9
মতুয়া সম্প্রদায়ের ভোট পেতে মরিয়া বিজেপি এবং তৃণমূল উভয়ই

রাজ্যের দুই দফার নির্বাচন সম্পন্ন হয়েছে। এই দুই দফার নির্বাচনের শেষে খুশি মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। নিজের জিৎ সম্পর্কে নিশ্চিত তিনি রাজ্যবাসীকে সেই আশ্বাস দিয়েছেন। দ্বিতীয় দফার নির্বাচনের দিন নন্দীগ্রামেই ছিলেন মুখ্যমন্ত্রী। নির্বাচন শেষ হতেই শুক্রবার সকালে কোচবিহারের দিনহাটার উদ্দেশ্যে রওনা দেন তিনি। সেখানে গিয়ে উপস্থিত দর্শকদের কাছে জোর গলায় বলেন, “আপনারা নিশ্চিন্তে থাকুন, আমিই জিতছি”।

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, পশ্চিমবঙ্গের ভোটে জিততে হলে মতুয়া সম্প্রদায়ের ভোট কিন্তু অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ প্রমাণিত হতে পারে। তাই বিজেপি এবং তৃণমূল উভয় তরফই মতুয়া সম্প্রদায়ের ভোট পেতে মরিয়া। কোচবিহারের দিনহাটার সভামঞ্চ থেকে মতুয়াদের উদ্দেশ্যে তিনি এতদিন কি কি করেছেন তার খতিয়ান পেশ করলেন। মুখ্যমন্ত্রী এদিন বলেন তিনি জাতপাতের রাজনীতি পছন্দ করেন না।

এদিন তিনি বলেন, মতুয়াদের নিজের টাকায় চিকিৎসা করিয়েছেন তিনি। তাদের সুবিধার জন্য রাস্তা তৈরি করেছেন। হরিচাঁদ-গুরুচাঁদ ঠাকুরের নামে কলেজ তৈরি হয়েছে। তৈরি হয়েছে পঞ্চানন বর্মা বিশ্ববিদ্যালয়। ৫০০ রাজবংশী শিল্পীকে সাহায্য প্রদান করেছে তৃণমূল। তার আমলে রাজবংশী ভাষা স্বীকৃতি পেয়েছে। হ্যান্ডলুম ক্লাস্টারও তৈরি হয়েছে।

এছাড়াও আগামী দিনে রাজবংশী কালচারাল বিল্ডিংও গড়ে তোলার পরিকল্পনা রয়েছে তার। পাশাপাশি তপশীলী-আদিবাসী মেয়েদের ৬০ বছর বয়সে পেনশন, বিধবাদের পেনশন, বাড়িতে বাড়িতে বিনা পয়সায় রেশন পৌঁছে দেওয়া এবং সব মেয়েদের প্রতিমাসে মেয়েরা ৫০০ টাকা করে হাত খরচও প্রদানের আশ্বাস দিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী।