জন্মভুমির চরম দুর্দশা দেখে ব্যাথিত বলিউড অভিনেত্রী সেলিনা জেটলি! জানালেন নিজের মতামত

11
জন্মভুমির চরম দুর্দশা দেখে ব্যাথিত বলিউড অভিনেত্রী সেলিনা জেটলি! জানালেন নিজের মতামত

আফগানিস্তানে তালিবানি শাসন প্রতিষ্ঠিত হতে দেখে সারা দুনিয়া রীতিমতো অবাক। কাবুলের দখল নেওয়ার পর থেকেই আফগানিস্তানজুড়ে তালিবানদের দৌরাত্ম্য বেশ টের পাওয়া যাচ্ছে। তালিবানি শাসনকালে সারা বিশ্বের মানুষ আফগানিস্তানের জনগণের বিপর্যস্ত জনজীবন প্রত্যক্ষ করছেন। এবার এই বিষয়ে মুখ খুললেন বলিউড অভিনেত্রী সেলিনা জেটলি।

সেলিনার দেশ আফগানিস্তান। বিগত চার প্রজন্ম ধরে তিনি ভারতবর্ষে রয়েছেন ঠিকই। তবে আফগানিস্তানের সঙ্গে রয়েছে তার নাড়ির টান। এতদিন সুরক্ষার বিষয়টি মাথায় রেখে চুপ করেছিলেন বলিউড অভিনেত্রী। তবে আফগানিস্তানের পরিস্থিতি দেখে তিনি আর চুপ করে থাকতে পারলেন না। নিজের জন্মভূমির এমন অবস্থা দেখে রীতিমতো ভেঙে পড়েছেন অভিনেত্রী। ইনস্টাগ্রামে একটি ভিডিও আপলোড করে তিনি নিজের মতামত তুলে ধরলেন।

সেলিনা জানিয়েছেন আজ থেকে প্রায় কয়েক দশক আগে তার পূর্বপুরুষ আফগানিস্তান ছেড়ে ভারতে আসার সাহস দেখাতে পেরেছিলেন। আফগানিস্তানের মাটিতে নিপীড়নের সম্মুখীন হয়ে তার প্রপিতামহি ভারতে চলে এসেছিলেন। এখানে এসে তিনি তার হৃত সম্মান ফিরে পেয়েছিলেন। তিনি বিশ্বাসই করতে পারছেন না আফগানিস্থানে এখন তালিবানি শাসনে এমন অরাজকতা চলছে।

সেলিনা নিজেকে ভাগ্যবতী মনে করছেন যে তিনি এখন আফগানিস্থানে থাকেন না। আফগানিস্তান এবং সারা দুনিয়ায় ছড়িয়ে ছিটিয়ে থাকা আফগান মানুষের জন্য তার চিন্তা হচ্ছে। তিনি তাদের কথা ভেবে দুঃখিত যারা নতুন আফগানিস্তানকে সারা বিশ্বের কাছে উপস্থাপন করেছিলেন। একইসঙ্গে তিনি ভারতবর্ষের কথাও বলেছেন। তিনি বলেন, ভারতবর্ষে এমন একটি দেশ যে দেশে তারা তাদের হৃত সম্মান ফিরে পেয়েছেন। যে দেশের মাটিতে বসে তিনি তার ক্ষোভ এবং প্রতিবাদ তুলে ধরতে পারেন। নিজের জন্মভূমির এমন অবস্থা দেখে তার বড়ই অসহায় বোধ হচ্ছে। সবকিছু ঠিক হয়ে যাক, এই প্রার্থনা করছেন সেলিনা।