কেন্দ্রীয় নিরাপত্তা নিয়ে মহাসংকটে পড়েছেন বিজেপি বিধায়ক চন্দনা বাউরী

27
কেন্দ্রীয় নিরাপত্তা নিয়ে মহাসংকটে পড়েছেন বিজেপি বিধায়ক চন্দনা বাউরী

একুশে বিধানসভা নির্বাচনে বিজেপির তরফের নির্বাচিত বিধায়কদের মধ্যে একেবারেই নিম্নবিত্ত শ্রেণীর অনেক বিধায়কই আছেন। এদের মধ্যে অনেকেই নিতান্ত চাষবাস করে দিন গুজরান করেন। ঘরে সেই অর্থে থাকারও তেমন সুব্যবস্থা নেই। ঘরে থাকার জন্য নিজেদেরই তেমন জায়গা হয় না, তার উপর আবার ভোটে জেতা বিধায়কদের নিরাপত্তার জন্য নিরাপত্তা রক্ষীবাহিনীর বন্দোবস্ত করে দিয়েছে দল।

এখন এই রক্ষীদের থাকা-খাওয়ার ব্যবস্থা করতে গিয়েই কার্যত হিমশিম খাচ্ছেন তারা। বাঁকুড়ার শালতোড়ার বিজেপি বিধায়ক চন্দনা বাউরী স্বামীর সঙ্গে চাষাবাদ করে কোনরকমে অর্থোপার্জন করে দিন কাটান। সারাদিন মাঠে হাড়ভাঙ্গা পরিশ্রম করে কোনরকমে দিন চলে, তারা এখন নিরাপত্তা রক্ষীদের ভরণপোষণ কেমন ভাবে করবেন, তা নিয়ে বেশ চিন্তিত। পরিস্থিতি বুঝে তিনি আপাতত নিরাপত্তারক্ষী নিতে চাইছেন না।

এই মর্মে সোশ্যাল মিডিয়ায় তিনি একটি পোস্টও করেছিলেন। চন্দনা বাউরির মতোই পরিস্থিতি সোনামুখীর বিধায়ক দিবাকর ঘরামির। তিনিও নিরাপত্তারক্ষীদের নিয়ে বেজায় সংকটে পড়েছেন। তাদের থাকা এবং খাওয়ার বন্দোবস্ত করতে গিয়ে হিমশিম খাচ্ছেন। নিজেদের দৈনন্দিন খাবার থেকেই কষ্ট করে জওয়ানদের মুখে খাবার তুলে দিচ্ছেন তিনি।

মালদহের গাজোলের বিধায়ক চিন্ময় দেব বর্মন, কোচবিহারের বিধায়ক মালতী রাভা রায় প্রত্যেকেরই অবস্থা একরকম। তারা জানাচ্ছেন জওয়ানরা তাদের সঙ্গে খুব কষ্ট করেই আছেন। তাদের থাকার জন্য কেউ আলাদা বাড়ি ভাড়া করছেন, কেউ আবার প্রতিবেশীর বাড়ি ভাড়া নিয়েছেন, আবার কেউ নিজের বাড়িতেই কোনরকমে তাদের থাকার জায়গা করেছেন।