বৈশাখী বন্দ্যোপাধ্যায় সম্পর্কে কুরুচিকর এবং অশ্লীল মন্তব্য করে বিপাকে অনুব্রত মণ্ডল

28
বৈশাখী বন্দ্যোপাধ্যায় সম্পর্কে কুরুচিকর এবং অশ্লীল মন্তব্য করে বিপাকে অনুব্রত মণ্ডল

তৃণমূল দল ত্যাগ করে সদ্য বিজেপি দলে যোগদান করেছেন প্রাক্তন তৃণমূল নেত্রী বৈশাখী বন্দ্যোপাধ্যায়। বিধানসভা নির্বাচনের প্রাক্কালে দলবদলের মরসুমের হাওয়ায় নিজেকে ভাসিয়েছেন তিনি। স্বভাবতই তৃণমূলের কাছে বৈশাখী বন্দ্যোপাধ্যায় এখন বিরোধী পক্ষ। সেই বিরোধী পক্ষের প্রতি চরম কুরুচিকর এবং অশ্লীল মন্তব্য করে বসলেন বীরভূমের তৃণমূল জেলা সভাপতি অনুব্রত মণ্ডল। পাশাপাশি প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকেও এক হাত নিয়েছেন তিনি।

এদিন আউশগ্রামে শাসকদলের তরফ থেকে আয়োজিত একটি জনসভায় অংশগ্রহণ করেছিলেন অনুব্রত মণ্ডল। সেখানেই বৈশাখী বন্দ্যোপাধ্যায় প্রসঙ্গে মন্তব্য করতে গিয়ে তিনি বলেন, “দিনে এই লোক, রাতে ওই লোক! বারবার লোক বদল করেন তিনি!”। প্রধানমন্ত্রীর নরেন্দ্র মোদিকেও সরাসরি “বেইমান” বলে কটাক্ষ করেছেন অনুব্রত মণ্ডল। প্রধানমন্ত্রীকে আক্রমণ করে তার বক্তব্য, “উনি কোনো কথা রাখেন না, বেইমান প্রধানমন্ত্রী!”

প্রধানমন্ত্রী সম্পর্কে বলতে গিয়ে তিনি আরও বলেছেন, “নরেন্দ্র মোদী বলছেন, বাংলাকে সোনার বাংলা করে তুলবেন! আগে গুজরাটকে করে দেখান।” তিনি আরও বলেছেন,”প্রধানমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে হিংসা করেন!” প্রধানমন্ত্রীকে আক্রমণ করে তার বক্তব্য, “মোদি সরকার একের পর এক সব বিক্রি করে দিচ্ছে। কয়লা খনি বিক্রি করে দিচ্ছে, ট্রেন বিক্রি করে দিচ্ছে। অপরপক্ষে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় লকডাউনে রাজ্যবাসীকে ফ্রি তে চাল দিচ্ছেন!”।

তিনি এও বলেছেন, “প্রধানমন্ত্রী লকডাউনের প্রথম তিন মাস বিনামুল্যে চাল দিলেন। তারপর আর দেন নি। অপরপক্ষে বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় আগামী জুন মাস পর্যন্ত বিনামূল্যে রাজ্যবাসীকে চাল দেওয়ার সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেছেন”। বর্তমান পরিস্থিতিতে দলবদলের রাজনীতি সম্পর্কে তার বক্তব্য, “প্রয়োজনে জেল খাটবো, তবুও তৃণমূল ছেড়ে যাবো না!” যারা দল ত্যাগ করছেন তাদের জন্য তৃণমূল কংগ্রেসের কোনো ক্ষতি হবে না বলেই দাবি করেছেন অনুব্রত মণ্ডল।