বেটি বাঁচাও বেটি পড়াও হয়ে গেছে বেটি পটাও! কটাক্ষ ও মিমের বন্যা

21
বেটি বাঁচাও বেটি পড়াও হয়ে গেছে বেটি পটাও! কটাক্ষ ও মিমের বন্যা

বেটি বাঁচাও বেটি পড়াও, এর পরিবর্তে প্রধানমন্ত্রীর মুখে এবার বেটি পটাও, এই স্লোগান। যা নিয়ে একেবারে কটাক্ষের ঝড় বয়ে যাচ্ছে সোশ্যাল মিডিয়ায়, সর্বত্র ট্রোলের বন্যা। আর সেই হিসেবেই টুইটারেও দারুণভাবে ট্রেন্ডিং এ রান করছে এই বিষয়টি। আসলে ঘটনাটি ঘটেছে একটি আন্তর্জাতিক মঞ্চে বক্তৃতা দেওয়ার সময়, প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি বক্তৃতা দেওয়ার সময় টেলিপ্রম্পটার বিভ্রান্তিতে নাজেহাল হয়ে যান, আর সেই কারণেই বেটি বাঁচাও বেটি পড়াও হয়ে গেছে বেটি পটাও।

ঘটনাটি ঘটেছে বৃহস্পতিবার, ব্রহ্ম কুমারী আয়োজিত ‘আজাদি কি অমৃত মহোৎসব সে স্বর্ণিম ভারত কি ওউর’ কর্মসূচির উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে। সেখানেই বক্তৃতা দিচ্ছিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। আর সেখানেই তিনি বেটি বাঁচাও বেটি পড়াও বলতে মুখ ফস্কে এমন শব্দ বেড় হয় যা শুনে অনেকেই মনে করে , মোদী আসলে বেটি পটাও কথাটাই বলেছেন। আর সেই থেকেই শুরু হয়েছে কটাক্ষের বন্যা ও মিমের বন্যা।

বিভিন্ন মিম ট্রল বিভিন্ন ভাবে তৈরি করা হয়, যা ইঙ্গিত করে প্রধানমন্ত্রীর এই মুখ থেকে ভুল করে বের হওয়া কথার ওপর। স্বাভাবিকভাবেই রাজনৈতিক মহলে ও বিভিন্ন জন বিভিন্ন কথা বলতে থাকে। একজন বলেন বর্তমানে বিজেপির এটাই আসল স্লোগান বাঁচাও বেটি পটাও। এই দলের থেকে আর কিছু আশা করা উচিত নয়। আবার আরেকজন বলেছেন, বাংলার বিধানসভা নির্বাচনের প্রচারে এসে মঞ্চে দাঁড়িয়ে যে দিদি দিদি বলে টিটকারি করতে পারে, তার কাছ থেকে আর কি আশা করা যায়??