দুই সন্তান নিয়ে আফগানিস্তানে আটকে বাংলার মেয়ে! কাতর আর্জি জানালেন দেশে ফেরার

17
দুই সন্তান নিয়ে আফগানিস্তানে আটকে বাংলার মেয়ে! কাতর আর্জি জানালেন দেশে ফেরার

চারিদিকে আতঙ্ক, গুলি বারুদের ধোঁয়া! তারই মধ্যে কোনোরকমে যেন প্রাণটুকু নিয়ে টিকে রয়েছেন আফগানিস্থানে বসবাসকারী ভারতীয় বংশোদ্ভূতরা। এখন তাদের শুধু একটাই আশা। নিজের দেশে ফিরতে চান তারা। তার জন্য ভারত সরকারের কাছে কাতর আবেদন জানাচ্ছেন আফগানিস্তানের মাটিতে আটকে পড়া ভারতীয় নাগরিকরা। কলকাতার বাসিন্দা সংঘমিত্রা দফাদারও সেই দেশে গিয়ে দুই সন্তানকে নিয়ে আটকে পড়েছেন। ফেরার কোনো উপায় নেই!

ভিন রাষ্ট্রে দুই সন্তানের সঙ্গে আটকা পড়ে রীতিমতো ভেঙে পড়েছেন তিনি। ভিডিও কলিংয়ে হাউ হাউ করে কান্নায় ভেঙে পড়লেন তিনি। দুটো বাচ্চা নিয়ে একা পড়ে রয়েছেন। নিজের মানুষ বলতে সেখানে কেউ নেই। কার সঙ্গে যোগাযোগ করবেন? কিভাবে, কোন উপায়ে ফিরবেন দেশে? ভেবে পাচ্ছেন না সংঘমিত্রা। বাংলার এক মেয়ের জীবন-মৃত্যু এখন যেন তালিবান জঙ্গিদের হাতে! এই ভিডিও সামনে আসতেই শোরগোল পড়ে গিয়েছে রাজ্যে।

পেশায় নার্স সংঘমিত্রা ২০০২ সালে গিয়েছিলেন আফগানিস্থানে। এতদিন সেখানে নিরাপদে ছিলেন তিনি। তবে আফগানিস্তানে তালিবান রাজ কায়েম হতেই বিপদে পড়ে গিয়েছেন তিনি। দেশে ফেরার উপায় খুঁজে পাচ্ছেন না। বাইরে মর্টার-কালাশনিকভ উঁচিয়ে ঘুরছে তালিবান জঙ্গিরা। আতঙ্কে ঘর ছেড়ে বাইরে বেরোতেও পারছেন না তারা।

আফগানিস্তানের বাসিন্দারা বিশেষত মহিলাদের উপর সেখানে কি হারে নির্যাতন চালানো হয়, তা এর আগে দেখেছে সারা বিশ্ব। বাংলার মেয়ে সংঘমিত্রা তার দুই সন্তানকে নিয়ে একা পড়ে রয়েছেন বিদেশের মাটিতে। দেশে ফেরার জন্য বারবার কাতর আর্জি জানাচ্ছেন। বৃদ্ধ বাবা-মায়ের কাছে সাহায্য চাইছেন। মেয়ের এই অবস্থাতে উদ্বিগ্ন হয়ে পড়েছেন তার বাবা মাও।