পুজোর আগেই বাংলা সফরে এসে রাজ্য সরকারের বিরুদ্ধে একরাশ ক্ষোভ উগরে দিলেন বিজেপির সভাপতি

4
পুজোর আগেই বাংলা সফরে এসে রাজ্য সরকারের বিরুদ্ধে একরাশ ক্ষোভ উগরে দিলেন বিজেপির সভাপতি

পূর্ব ঘোষণা অনুযায়ী পুজোর আগেই বাংলা সফরে এসেছেন বিজেপি সভাপতি জে পি নাড্ডা। উত্তরবঙ্গ সফরে এসে শিলিগুড়িতে দলীয় নেতাকর্মীদের নিয়ে বৈঠক করেন তিনি। উত্তরবঙ্গ সফরে এসে রাজ্য সরকারের বিরুদ্ধে কার্যত ক্ষোভ উগরে দিলেন বিজেপির সভাপতি। বাংলায় এসে রাজ্য সরকারের প্রতি কার্যত হুঁশিয়ারি দিয়ে তিনি জানালেন, আগামী বছরের এপ্রিল মাসেই বর্তমান রাজ্য সরকারকে ক্ষমতা থেকে উৎখাত করবে বিজেপি।

এদিন বৈঠকে অংশগ্রহণ করে তিনি বলেন, বাংলার রাজ্য সরকার কোনো কেন্দ্রীয় প্রকল্প এই রাজ্যে চালু হতে দিচ্ছেন না। রাজ্যবাসীকে কেন্দ্রের প্রকল্প থেকে বঞ্চিত রাখছেন তিনি। তবে এই ব্যবস্থা বেশিদিন টিকবে না বলেই মন্তব্য করেছেন তিনি। আগামী একুশের নির্বাচনে তৃণমূলকে হারিয়ে বিজেপি বাংলার শাসনভার দখল করবে। তখন বাংলায় প্রতিটি কেন্দ্রীয় প্রকল্প চালু করা হবে।

রাজ্য সরকারের প্রতি তার অভিযোগ, কেন্দ্রের প্রণীত নতুন কৃষি আইন বঙ্গে চালু করতে দিতে চাইছে না মমতা সরকার। বিজেপি ক্ষমতায় এলে এক মাসের মধ্যেই তা কার্যকর করা হবে। শুধু তাই নয়, কেন্দ্রের প্রণীত “কৃষক সম্মান নিধি” প্রকল্প থেকেও বঙ্গের কৃষকদের বঞ্চিত রাখছেন মমতা। রাজ্যের প্রায় ৭৬ লক্ষ কৃষককে কেন্দ্রের এই আর্থিক সাহায্য থেকে বঞ্চিত করছেন তিনি।

পাশাপাশি, রাজ্যে “আয়ুষ্মান ভারত প্রকল্প” চালু হতে না দেওয়া প্রসঙ্গেও মমতা সরকারের কড়া সমালোচনা করেছেন বিজেপি সভাপতি। বিতর্কিত সিএএ সম্পর্কে তার বক্তব্য, পশ্চিমবঙ্গে নাগরিকত্ব আইন চালু হবেই। এই আইনের মাধ্যমে বাংলাদেশ থেকে আগত হিন্দু শরণার্থীরা নাগরিকত্ব পাবেন। তার দাবি, করোনা মহামারীর জন্য নাগরিকত্ব সংশোধনী আইনের নিয়ম নির্ধারিত হতে দেরি হচ্ছে।