করোনার নতুন উপসর্গ গুলি জেনে নিয়ে সতর্ক হন! অন্যথায় পরবেন বিপদে

98
করোনার নতুন উপসর্গ গুলি জেনে নিয়ে সতর্ক হন! অন্যথায় পরবেন বিপদে

সাধারণ সর্দি কাশির সঙ্গে এতটাই মিল করোনাভাইরাস এর যে তার সঙ্গে পার্থক্য খুঁজে পাওয়া বেশ মুশকিল। তবে নতুন করোনাভাইরাস এর বেশ কিছু নতুন লক্ষণ খুঁজে পাওয়া গেছে। সংক্রামক রোগের প্লেট লেটগুলি হঠাৎ কমে যায়, রোগী হঠাৎ করে ক্লান্ত বোধ করতে শুরু করে দেয়। শ্বাসকষ্টের লক্ষণ গুলি পড়ে প্রকাশিত হয়। প্রাথমিকভাবে এই অপেক্ষা গুলি যদি আপনি উপেক্ষা করেন তাহলে পরবর্তীকালে ফল মারাত্মক হতে পারে।

ইতিমধ্যেই শুনতে পাওয়া যাচ্ছে যে, করোনাভাইরাস এর পরীক্ষা করার সময় দেখা যাচ্ছে যে প্লেটলেট হঠাৎ করে অনেকটাই কমে যাচ্ছে। যাদের প্লেটলেট থাকার কথা প্রায় ৪ লাখ এর কাছাকাছি, সেখানে নেমে দাঁড়িয়ে আছে ৫০ হাজারে। অনেকেই শয্যা না পাবার জন্য চিকিৎসার জন্য অপেক্ষা করতে করতে মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়েন।

এরকম আরেকটি ঘটনা ঘটেছে বালাগঞ্জের বাসিন্দার সঙ্গে। হঠাৎ করে ক্লান্ত বোধ করার পরে তিনি রক্ত পরীক্ষা করে জানতে পারলেন যে তার শরীরের রয়েছে কেবল মাত্র ২১ হাজার প্লেটলেট। হঠাৎ করে শ্বাস কষ্টে ভুগতে থাকেন তিনি। বেসরকারি হাসপাতালে সিটি স্ক্যান এর পর জানা যায় যে, তিন কোভিদ নিউমোনিয়ায় আক্রান্ত।
প্রাথমিক পর্যায়ে কিন্তু শুকনো কাশি অথবা জ্বর-শ্বাসকষ্টে মত কিছু লক্ষণ না দেখা গেলেও পরবর্তী সময়ে বুঝতে পারা যাচ্ছে যে এটি কোভিদ।

জ্বর অথবা অন্য রকম কোনো উপসর্গ না দেখা গেলেও কিন্তু রিপোর্ট পজেটিভ আসছে। মহামারী লক্ষণগুলি অনেকটাই ইন্সুরেন্স এর মত। তাই কোন সামান্য লক্ষণ শরীরে উপস্থিত থাকলেই কোভিদ নাইনটিন পরীক্ষা করে নেওয়া ভালো। এই পথ যদি নেগেটিভ আসে তাও যে কোন লক্ষণ কে এড়িয়ে না যাওয়াই ভালো। গন্ধ এবং স্বাদ যদি না থাকে, তাহলে সঙ্গে সঙ্গে নিজেকে আইসোলেশন এ রেখে দিতে হবে।

এখন জ্বর সর্দি কাশির পাশাপাশি ডায়রিয়ার মত লক্ষণ ও দেখতে পাওয়া যাচ্ছে। তাই কোনো রকম কোনো লক্ষণ ফেলে দেবার মতো নয়। যে কোন লক্ষ্মন শরীরে উপসর্গ দেখা দিলে সঙ্গে সঙ্গে চিকিৎসকের পরামর্শ নিন।

COVID 19 symptoms