ওমিক্রনে শরীরের এই ২ টি অংশে ব্যাথা হলে সাবধান হোন!

24
ওমিক্রনে শরীরের এই ২ টি অংশে ব্যাথা হলে সাবধান হোন!

বিশ্বে গত কয়েক বছরে কোভিড ঘিরে একাধিক পরিস্থিতি সামনে এসেছে।এসেছে বহু কোভিড ভ্যারিয়েন্টের নাম। সাম্প্রতিককালে কোভিডের ভ্যারিয়েন্ট ওমিক্রন ঘিরেও উদ্বেগ তৈরি হয়। প্রবল সংক্রামক ক্ষমতা নিয়ে চলা এই ওমিক্রন ভ্যারিয়েন্ট কাশি, সর্দি সহ বিভিন্ন উপসর্গ নিয়ে উপস্থিত হয় হয়েছে। রোগীর দেহে জ্বরের প্রকোপ সেভাবে দেখা না গেলেও কাশি বা সর্দির প্রভাব লক্ষ্য করা গিয়েছে।

এদিকে বিভিন্ন গবেষণায় উঠে আসছে ওমিক্রনের নতুন উপসর্গ। বিভিন্ন গবেষণার সূত্র ধরে বিশেষজ্ঞরা বলছেন, ওমিক্রনে আক্রান্ত বেশিরভাগ রোগীরাই জানাচ্ছেন তাঁদের শরীরে দুটি জায়গায় ব্যথা শুরু হয়েছে। কাঁধে ও পায়ে ব্যাথা হওয়া ওমিক্রন আক্রমণের অন্যতম উপসর্গ বলে জানাচ্ছেন গবেষকরা। মূলত, গলা ব্যথা ও শরীরে ব্যথাই ওমিক্রনের উপসর্গ হিসাবে ধরা হয়। এছাড়াও কাঁধে ও পায়ে প্রবল যন্ত্রণাও ওমিক্রনের অন্যতম উপসর্গ বলে বিবেচিত হচ্ছে।

ইউকের কোভিমড ট্র্যাকার অ্যাপ জো কোভিড-এর বক্তব্য অনুযায়ী, সর্দিভাব, মাথায় যন্ত্রণা, ক্লান্তি, হাঁচির মতো উপসর্গ দেখা যাচ্ছে। ব্রিটেনের ই কোভিড ট্র্যাকার বলছে, বহু ওমিক্রন আক্রান্তই ডাইরিয়াতে ভুগছেন। অনেকেরই খাওয়া দাওয়ায় আসক্তি কমেছে, রয়েছে পেট ব্যথা। এই সমস্তই ওমিক্রনের উপসর্গ।

বিশেষজ্ঞরা বলছেন, যন্ত্রণা প্রবলভাবে হতে পারে। যতক্ষণ না সুস্থ হয়ে উঠছেন রোগী ততক্ষণ পর্যন্ত এই যন্ত্রণা হতে পারে। এছাড়াও পায়ে দুর্বলতা বা অসাড়ভাব অনুভব করতে পারেন রোগী। অনেক ওমিক্রন আক্রান্তের দাবি, তাঁদের কাঁধেও অসাড়ভাব ছিল। সঙ্গে ছিল একটা ‘স্টিফ’ থেকে যাওয়ার মতো অনুভূতি ছিল কাঁধে।