থুতু ছিটিয়ে দিয়ে সেঁকছে রুটি, ভিডিও ভাইরাল হতেই গ্রেপ্তার অভিযুক্ত

19
থুতু ছিটিয়ে দিয়ে সেঁকছে রুটি, ভিডিও ভাইরাল হতেই গ্রেপ্তার অভিযুক্ত

নিজের থুতু মিশিয়ে দিয়ে গ্রাহকদের খাদ্য সামগ্রী পরিবেশন করছেন হোটেলের কিংবা রেস্তোরাঁর কর্মীরা! বিগত বেশ কয়েকদিন ধরেই দেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে উঠে আসছে এমনই সব ভয়ঙ্কর ভিডিও। মীরাটের একটি বিবাহ অনুষ্ঠানে এক রুটি প্রস্তুতকারককে এই দুষ্কর্ম করতে দেখা গিয়েছিল। এরপর গত সপ্তাহে গাজিয়াবাদের একটি দোকানেও একই চিত্র ধরা পড়েছে।

এবার পশ্চিম দিল্লির একটি খাবারের দোকানের কর্মীদের বিরুদ্ধেও একই অভিযোগ উঠলো। সম্প্রতি ওই দোকানের কর্মীদের খাবার বানানোর একটি ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় বেশ ভাইরাল হয়ে গিয়েছে। ভিডিওটিতে দেখা যাচ্ছে, দোকানের এক কর্মী আটা মাখছে। অপর একজন সেই আটা থেকে রুটি বেলে তার উপর নিজের থুতু ছিটিয়ে দিয়ে তারপর রুটি সেঁকছে।

ভিডিও দেখে নেটদুনিয়ায় রীতিমতো চাঞ্চল্য সৃষ্টি হয়েছে। এই ভিডিওটিকে হাতিয়ার করে পুলিশকর্মীরা ইতিমধ্যেই ওই দোকানের দুই কর্মীকে গ্রেফতার করে নিয়েছেন। ধৃতদের নাম আনোয়ার ও ইব্রাহিম। এরা দুজনেই দিল্লির একটি বিশিষ্ট খাবারের দোকান “চাঁদ” এর কর্মী হিসেবে নিযুক্ত ছিল। পুলিশ সূত্রে খবর, এরা দু’জনই বিহারের কৃষ্ণগঞ্জের বাসিন্দা।

এই ঘটনা প্রসঙ্গে দিল্লি পুলিশের তরফ থেকে একজন সিনিয়র আধিকারিক জানালেন, এমন গুরুতর অপরাধের অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে ইতিমধ্যেই ওই হোটেলের দুই কর্মীকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। পাশাপাশি হোটেলের মালিক আমিরের বিরুদ্ধেও লিখিত অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। করোনার দরুন এমনিতেই উদ্বিগ্ন সাধারণ মানুষ। তার উপর এমন দুষ্কর্মের তথ্য প্রকাশ্যে আসাতে উদ্বেগ আরো বাড়ছে।