আপনার এই জিনিসের ব্যবহারের জন্য আপনার শিশুর ক্ষতি হচ্ছে না তো

2443
আপনার এই জিনিসের ব্যবহারের জন্য আপনার শিশুর ক্ষতি হচ্ছে না তো

একটি শিশু বড়দের দেখেই শেখে কথায় আছে।যেগুলি বড়রা করে তারা সেগুলিই করে, বিশেষ করে বাবা মা। তাদের মনটা এতটাই আয়নার মতো পরিষ্কার যে এইভাবেই ফুটে ওঠে তাদের সামনে পাশের পরিবেশ।

মা-বাবার সময় কাটানো যে কতটা প্রয়োজনীয় তা হয়তো আগেও আপনারা পড়েছেন। কিন্তু দুঃখের বিষয় হলতাদের দেওয়া সেই সময়ের বেশিরভাগ নিয়ে নিচ্ছে আপনার মোবাইল ফোন।

শিশুর জন্যে সময় বের করতে পারছেন না আপনি হয়তো । একেই সোশ্যাল নেটওয়ার্কিং এর যুগ। আপনাদের সেই ব্যস্ততায় জন্ম নিচ্ছে শিশুদের মধ্যে একাকীত্ব ও গুরুত্ব না পাওয়ার যন্ত্রণা এবং ক্ষোভ।

তারা হয়ে উঠছে অতিরিক্ত আবেগপ্রবণ অথবা একেবারেই আবেগহীন। দেখা দিচ্ছে বদমেজাজ, খিটখিটে স্বভাব বা ঘ্যানঘ্যানে স্বভাব।

বাবা মা ও শিশুর মধ্যে কথোপকথন হওয়া কালীন যখনই মোবাইলে মন দেন বাবা মা তখনই তা কথাবার্তায় বিঘ্ন ঘটায় এবং শিশু ও মা বাবার মধ্যে একটি মানসিক দূরত্ব তৈরি হয়।

বিজ্ঞানসম্মত ভাবে জানা গিয়েছে যে দুটি কাজ কখনো সম্ভব না কারণ এতে কোনটাই পুরোপুরি ভালভাবে হয় না। তাই মোবাইলের দিকে মন দেবেন না যখন আপনি শিশুর সাথে সময় কাটাচ্ছেন তখন শুধু সেটিই করুন।