স্বামী জয়ী হওয়ায় নিজের কাঁধেই তুলে নিয়ে গ্রাম ঘোরালেন আনন্দে উচ্ছ্বসিত স্ত্রী

5
স্বামী জয়ী হওয়ায় নিজের কাঁধেই তুলে নিয়ে গ্রাম ঘোরালেন আনন্দে উচ্ছ্বসিত স্ত্রী

গ্রাম পঞ্চায়েতের নির্বাচনে বিরোধী পক্ষকে হারিয়ে সম্প্রতি জয়ী হয়েছেন স্বামী! স্বামীর সফলতায় আনন্দে উচ্ছ্বসিত স্ত্রী তাই স্বামীকে রীতিমতো নিজের কাঁধেই তুলে নিলেন! এমনই একটি ঘটনা সম্প্রতি সোশ্যাল মিডিয়ায় বেশ সাড়া ফেলে দিয়েছে। ঘটনাটি ঘটেছে মহারাষ্ট্রের পুনে জেলার খেদ এলাকার পালু গ্রামে। ওই গ্রামের বাসিন্দা সন্তোষ গৌরব সম্প্রতি গ্রাম পঞ্চায়েতের নির্বাচনে জিতেছেন।

তার এই সাফল্যে স্বভাবতই তার অনুরাগী এবং পরিবার ভীষণ খুশি। সন্তোষ গৌরবের স্ত্রী রেণুকা সন্তোষ গৌরব এতটাই খুশি হয়েছেন যে স্বামীকে সরাসরি নিজের কাঁধে তুলে নিয়েছেন তিনি। এখানেই শেষ নয়, স্বামীর জয়ের আনন্দ উদযাপন করতে নিজের কাঁধে স্বামীকে বসিয়েই সারা গ্রামে ঘুরেছেন তিনি। সোশ্যাল মিডিয়ায় এই ছবি রীতিমতো ভাইরাল হয়ে গিয়েছে। নেটিজেনরা তার প্রশংসায় পঞ্চমুখ।

বিশিষ্ট সূত্রে খবর, মহারাষ্ট্রের গ্রাম পঞ্চায়েত নির্বাচনে জাকমাট্টা দেবী গ্রামবিকাশ জোটের হয়ে প্রার্থী হিসেবে দাঁড়িয়ে ছিলেন পালু গ্রামের বাসিন্দা সন্তোষ গৌরব। ভোটের ফলাফল প্রকাশ পেতে দেখা গেল, পয়েন্ট বিকাশ সোসাইটির চেয়ারম্যান রামদাস সাওয়ান্ত ও পালু গ্রামের প্রাক্তন প্রধান বাবান সাওয়ান্তের নেতৃত্বাধীন ওই জোট প্রতিপক্ষ জাকমাট্টা দেবী পরিবর্তন জোটকে ৭টি আসনের মধ্যে ৬টি আসনে হারাতে সক্ষম হয়েছে।

এরমধ্যে ২২১টি ভোট পেয়ে প্রতিপক্ষকে ৪৪ ভোটে হারিয়ে দিয়েছেন সন্তোষ গৌরব। এই খবর পেয়েই আনন্দে উচ্ছ্বসিত রেনুকা সন্তোষ গৌরব স্বামীকে কাঁধে বসিয়ে সারা গ্রাম টহল দিলেন। প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, করোনা মহামারীর জেরে পুনে প্রশাসনের তরফ থেকে পাঁচজনের বেশি সদস্য নিয়ে বিজয় মিছিল বের করার উপর নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে। সেই নিষেধাজ্ঞা মেনেই রেনুকাদেবী স্বামীকে কাঁধে বসিয়ে বিজয় মিছিল বের করেন। এই মিছিলে অংশগ্রহণকারী অন্যান্যরাও সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখেছিলেন বলে জানা গিয়েছে।