পূর্ব ঘোষণা অনুযায়ী রাজ্য জুড়ে শুরু হয়ে গেল বাংলা সহায়তা কেন্দ্র

24
পূর্ব ঘোষণা অনুযায়ী রাজ্য জুড়ে শুরু হয়ে গেল বাংলা সহায়তা কেন্দ্র

রাজ্য সরকারের পূর্ব ঘোষণা অনুযায়ী রাজ্য জুড়ে শুরু হয়ে গেল বাংলা সহায়তা কেন্দ্র। বুধবার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় নবান্ন থেকে ঘোষণা করেছিলেন যে এবার থেকে আর রাজ্যবাসীকে রেশন কার্ড, আধার কার্ড কিংবা কন্যাশ্রী, খাদ্যসাথীর মতো সরকারের জনপ্রিয় প্রকল্পে নাম নথিভুক্ত করতে কিংবা পরিষেবা পাওয়ার জন্য সরকারি দপ্তরে যেতে হবে না। স্থানীয় ব‍রো অফিসে যোগাযোগ করলেই হবে।

মুখ্যমন্ত্রী জানিয়েছিলেন যে, স্থানীয় ব‍রো অফিসে গিয়ে সকাল দশটা থেকে বিকেল পাঁচটার মধ্যে সরকারের সমস্ত জনমুখী প্রকল্পের জন্য আবেদন করতে পারবেন রাজ্যবাসী। রাজ্য সরকারের এই ঘোষণার পরপরই কলকাতা পুরসভার তরফ থেকে উদ্যোগ নিয়ে সেই পরিকল্পনা বাস্তবায়িত করার কাজ শুরু হয়ে গিয়েছে। অতএব এবার থেকে সরকারি পরিষেবা পাওয়ার জন্য আর সরকারি অফিসের মুখাপেক্ষী হয়ে থাকতে হবে না।

বৃহস্পতিবার প্রথম দফায় কলকাতা ৯ নম্বর বরো অফিসে চালু হয়েছে এই বাংলা সহায়তা কেন্দ্র। কলকাতা পুরসভার প্রশাসক মন্ডলীর প্রধান ফিরহাদ হাকিম ও কলকাতা পুরসভার কমিশনার বিনোদ কুমারের উপস্থিতিতে এই পরিকল্পনার উন্মোচন হয়। উপস্থিত ছিলেন স্থানীয় বহু মানুষ। রাজ্য সরকারের জনমুখি প্রকল্পের সুবিধা পাওয়ার জন্য বাড়ির অদূরে এই বরো অফিসে মানুষের ভিড় বাড়তে থাকে।

এই পরিকল্পনা বাস্তবায়িত হওয়ার প্রথম দিনেই সাধারণ মানুষের উৎসাহ লক্ষ্য করা গিয়েছে। এদিন সকাল থেকেই বহু মানুষ স্থানীয় বরো অফিসে ভিড় জমাতে শুরু করেন। সকলে নিজের নিজের সমস্যার সমাধানের জন্য সংশ্লিষ্ট বাংলা সহায়তা কেন্দ্রের উপস্থিত হন। আগামী দিনে পুরসভার সব কটি ওয়ার্ডেই বাংলা সহায়তা কেন্দ্র চালু করার পরিকল্পনা রয়েছে রাজ্য সরকারের।