ফের আগের মতো এলপিজি সিলিন্ডার কেনার ক্ষেত্রে ভর্তুকি দেবে কেন্দ্রীয় সরকার

4
ফের আগের মতো এলপিজি সিলিন্ডার কেনার ক্ষেত্রে ভর্তুকি দেবে কেন্দ্রীয় সরকার

করোনা মহামারীর জেরে গোটা দেশে মূল্যবৃদ্ধি চলছে। গ্যাস, পেট্রোল, ডিজেল, নিত্য প্রয়োজনীয় সামগ্রীর দাম আকাশ ছোঁয়া। ভারতে গ্যাসের দাম ক্রমাগত বৃদ্ধি পাচ্ছে। প্রতি মাসে গ্যাসের দাম বৃদ্ধি পাওয়াতে মধ্যবিত্তের হেঁসেল রীতিমতো আগুন। বর্তমানে দেশের বিভিন্ন শহরে 14.2 কেজি এলপিজি সিলিন্ডারের দাম 900 থেকে 950 টাকা পড়ছে। সরকারের তরফ থেকে মিলছে নামমাত্র ভর্তুকি।

করোনা মহামারী শুরু হওয়ার পর সরকার ভর্তুকি বলতে গেলে এক প্রকার বন্ধ করে দিয়েছে। গ্যাসের সিলিন্ডারের দাম যে হারে বাড়ছে সেই হারে কমছে ভর্তুকির পরিমাণ। যদি এখন অবশ্য কিছুটা হলেও আশার খবর শোনা যাচ্ছে। অনুমান করা হচ্ছে এবার ফের আগের মতো এলপিজি সিলিন্ডার কেনার ক্ষেত্রে ভর্তুকি দেবে কেন্দ্রীয় সরকার। সম্প্রতি এ-সংক্রান্ত একটি প্রস্তাব পাঠানো হয়েছে অর্থ মন্ত্রণালয়ে।

ঝাড়খন্ড, মধ্যপ্রদেশ, উত্তর-পূর্বের রাজ্যগুলিতে এলপিজি সিলিন্ডার এর ক্ষেত্রে ভর্তুকি দেওয়া চালু হয়েছে। দেশের অন্যান্য রাজ্যেও এই ব্যবস্থা চালু হবে বলে আশা করা হচ্ছে। অর্থমন্ত্রণালয় এই প্রস্তাব অনুমোদন করলে কোম্পানিগুলো তাদের ডিলারদের 303 টাকা করে ভর্তুকি দেবে। সেই হিসেবে বর্তমানে যদি সিলিন্ডার এর জন্য 900 টাকা করে দিতে হয় তাহলে সরকারের তরফ থেকে ভর্তুকি মিললে সিলিন্ডার পাবেন মাত্র 587 টাকায়।

নিত্যপ্রয়োজনীয় গ্যাসের সিলিন্ডারের দাম বাড়ানোয় কেন্দ্রের বিরুদ্ধে সাধারণ মানুষের মধ্যে ক্ষোভ বাড়ছে। জ্বালানি তেলের দাম ক্রমাগত বাড়ছে। রান্নার কাজে ব্যবহৃত সিলিন্ডার থেকে শুরু করে যানবাহন চালানোর জন্য প্রয়োজনীয় পেট্রোল-ডিজেলের দাম বাড়ছে। দামে নিয়ন্ত্রণ আনার জন্য ব্যবস্থা নিচ্ছে কেন্দ্র সরকার।