কাশ্মীরে ফের নাশকতার ছক বানচাল করলো সেনাবাহিনী, উদ্ধার হল প্রায় ৫২ কেজি বিস্ফোরক

7
কাশ্মীরে ফের নাশকতার ছক বানচাল করলো সেনাবাহিনী, উদ্ধার হল প্রায় ৫২ কেজি বিস্ফোরক

কাশ্মীরে তল্লাশি অভিযান চালিয়ে আরও বড় সাফল্য পেল ভারতীয় সেনাবাহিনী। কাশ্মীরের গডিকালের করেবা এলাকায় একটি সেপটিক ট্যাঙ্ক থেকে উদ্ধার হলো ৪১৬টি বিস্ফোরক বোঝাই প্যাকেট। যার মধ্যে প্রায় ৫২ কেজি বিস্ফোরক মজুত ছিল। এই বিস্ফোরক গুলি দিয়ে কাশ্মীরের পুলওয়ামা অ্যাটাকের মতই ভয়ঙ্কর বিস্ফোরণ ঘটানোর ষড়যন্ত্র করছিল দুষ্কৃতীরা। তবে ভারতীয় সেনাবাহিনীর তৎপরতায় জঙ্গিদের সেই পরিকল্পনা আগেই ব্যাহত হয়ে গেল। ভারতীয় সেনাবাহিনীর তল্লাশি অভিযানে পুলওয়ামার মতো ভয়ঙ্কর জঙ্গি হামলা আটকানো সম্ভব হলো।

ভারতীয় সেনা এবং নিরাপত্তা রক্ষী বাহিনীর যৌথ উদ্যোগে কাশ্মীরে বড়োসড়ো নাশকতার ছক বানচাল করে দেওয়ার সম্ভাবনা হয়েছে। তবে এ পর্যন্ত ঘটনার সঙ্গে জড়িত কোনো জঙ্গির খোঁজ পাওয়া যায়নি। যে জায়গা থেকে বিস্ফোরক উদ্ধার হয়েছে সেখানে জঙ্গিদের খোঁজে চিরুনি তল্লাশি শুরু করেছে ভারতীয় যৌথ বাহিনী। ভারতীয় সেনাবাহিনী সূত্রে খবর, যে জায়গা থেকে বিস্ফোরক উদ্ধার হয়েছে, সেই জায়গাটি কাশ্মীরের পুলওয়ামার পাশেই অবস্থিত।

ভারতীয় সেনাবাহিনীর তরফ থেকে জানানো হয়েছে, গোপন সূত্র থেকে খবর আসে যে কাশ্মীরের রাষ্ট্রীয় রাজমার্গের কাছেই বিপুল পরিমাণ বিস্ফোরক লুকিয়ে রেখেছে জঙ্গিরা। খবর পাওয়া মাত্রই এদিন সকাল আটটা নাগাদ ওই এলাকায় জোর তল্লাশি অভিযান শুরু করে ভারতীয় সেনারা। এরপর দুটি সেপটিক ট্যাংক থেকে বিপুল পরিমাণে বিস্ফোরক উদ্ধার করা হয়। এর মধ্যে ছিল ৫২ কেজি সুপার ৯০ ও এস ৯০ বিস্ফোরক এবং প্রায় ৫০টির জিলেটিন স্টিক ও ডেটোনেটর।

উল্লেখ্য, কাশ্মীরে ৩৭০ ধারা বিলোপের পর থেকেই বিগত এক বছর ধরে একের পর এক জঙ্গি দমন অভিযান চালানো হচ্ছে উপত্যকা অঞ্চলে। তার ফলও পাওয়া যাচ্ছে হাতেনাতে। কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকের দাবি অনুযায়ী, বিগত এক বছরে কাশ্মীরে প্রায় ৫৪ শতাংশ জঙ্গী নাশকতা কমে গিয়েছে। ভারতীয় সেনাবাহিনী সূত্রের খবর, বিগত এক বছরে উপত্যকায় প্রায় ১৭৭ জন জঙ্গিকে খতম করা সম্ভব হয়েছে। এবার, বেশ বড়সড় জঙ্গি নাশকতার ছক বানচাল করে দিল ভারতীয় যৌথবাহিনী।