২২০-২৩০টি আসনে জয়লাভ করতে মহাবিজয় যজ্ঞ করলেন অনুব্রত মণ্ডল

10
২২০-২৩০টি আসনে জয়লাভ করতে মহাবিজয় যজ্ঞ করলেন অনুব্রত মণ্ডল

আসন্ন একুশের বিধানসভা নির্বাচনের প্রেক্ষাপটে রাজনৈতিক দলগুলির ভোট প্রচারের প্রস্তুতি তুঙ্গে। বিশেষত বিধানসভা নির্বাচনে আশানুরূপ ফল পেতে হাড্ডাহাড্ডি প্রয়াস চালাচ্ছে বিজেপি এবং তৃণমূল। একুশের বিধানসভায় নির্বাচনকে কেন্দ্র করে কার্যত বিজেপি এবং তৃণমূলের মধ্যে হাড্ডাহাড্ডি লড়াই বাঁধবে, এখন থেকেই তা বেশ বোঝা যাচ্ছে। উভয় তরফই ২০০ আসনে জিতের রাজ্য জয়ের লক্ষ্যমাত্রা নিয়ে এগোচ্ছে।

তৃণমূলের আসন সুনিশ্চিত করতে বীরভূম জেলার তৃণমূল সভাপতি অনুব্রত মণ্ডল মহাবিজয় যজ্ঞের আয়োজন করলেন। আসন্ন একুশের লড়াইয়ে তৃণমূল ২২০-২৩০টি আসনে জয়লাভ করুক, এই ছিল তার প্রার্থনা। এবং তৃণমূল সভাপতি অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের সুস্থতা এবং দীর্ঘ জীবন কামনা করেছেন তিনি তার এই যজ্ঞে। বুধবার সকালে কঙ্কালীতলায় অনুব্রত মণ্ডলের উদ্যোগে এই বিশাল যজ্ঞের আয়োজন করা হয়।

সূত্রের খবর, মহাসমারোহে যজ্ঞের আয়োজন করা হয়। রাজ্যের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে ১২জন পুরোহিত এদিনের যজ্ঞ সাধনে উপস্থিত ছিলেন। ১২৮ কুইন্টাল কাঠ, ৪০ কেজি ঘি লেগেছিল এই যজ্ঞে। অনুব্রত মণ্ডলের উদ্যোগে আয়োজিত এই যজ্ঞক্ষেত্রে মন্ত্রী চন্দ্রনাথ সিনহা, আশিস বন্দ্যোপাধ্যায়, জেলাপরিষদের মেন্টর অভিজিৎ সিংহ, জেলার সাধারণ সম্পাদক সুদীপ্ত ঘোষ-সহ জেলার তৃণমূল নেতৃত্বরা উপস্থিত ছিলেন।

যজ্ঞ শেষে ৪ হাজার দরিদ্রকে খিচুড়ি ভোগ খাওয়ানো হয়। প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, বীরভূম জেলার ১১টি আসনের মধ্যে ৯টি আসন তৃণমূলের দখলে রয়েছে। অনুব্রত মণ্ডলের দাবি, একুশের লড়াইয়ে বাকি দুটি আসনও ছিনিয়ে নেবে তৃণমূল। পাশাপাশি, রাজ্য জুড়ে ২২০-২৩০টি আসনেও তৃণমূলের জয় সম্পর্কে নিশ্চিত তিনি। মাঝে যাতে কোনো বিঘ্ন না আসে, তা নিশ্চিত করতেই এহেন মহা যজ্ঞের আয়োজন করা হয়েছিল।