ক্রোধ রা রাগ মানুষের জীবনকে শেষ করে দেয়! জেনে নিন কিছু টিপস যা রাগ নিয়ন্ত্রণে সহায়তা করবে আপনার

18
ক্রোধ রা রাগ মানুষের জীবনকে শেষ করে দেয়! জেনে নিন কিছু টিপস যা রাগ নিয়ন্ত্রণে সহায়তা করবে আপনার

ক্রোধ হলো আমাদের অন্যান্য আবেগের মতো আমাদের আবেগের বহিঃপ্রকাশ। কিন্তু ক্রোধ বেশি হয়ে গেলে তা মানুষের জীবনে ক্ষতি সৃষ্টি করে দেয়। কথাতেই আছে ক্রোধে অন্ধ হয়ে গেলে মানুষের দিকবিদিক শূন্য হয়ে যায়। অনেক সময় মানুষ সঠিক আচরণ করতে ভুলে যায় ক্রোধ হলে। পরে ক্রোধ শান্ত হলে নিজের ভুল বুঝতে পারলেও অনেক সময় অনেক ভুলের প্রায়শ্চিত্ত হয় না।

আজ এই প্রতিবেদনের মাধ্যমে আপনাকে রাগ নিয়ন্ত্রণ করার কিছু উপায় জানাবো যার ফলে আপনি আপনার রাগ নিয়ন্ত্রণ করতে পারবেন।

সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিন: মনের কষ্ট থেকে আপনি সঙ্গী অথবা সঙ্গিনীর উপর রাগ করতে পারেন। মানসিক কষ্ট থেকে বেরিয়ে আনতে গেলে সঙ্গী অথবা সঙ্গিনীর দিকে সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিন। সঙ্গী অথবা সঙ্গে মন ভালো হয়ে যায় এমন কিছু করার চেষ্টা করুন। আপনার প্রিয় মানুষটি আপনার রাগ কমানোর চেষ্টা করছে, সেটা জানলে হয়তো আপনি আপনার রাগ নিয়ন্ত্রণ করার চেষ্টা করতে পারবেন।

আবেগগত ভাবে নিরাপদ বোধ করান: রাগের মুহূর্তে এমন কিছু কথা আপনি আপনার সঙ্গী অথবা সঙ্গিনীকে বলুন যা আপনার সঙ্গী অথবা সঙ্গিনীর মনকে শান্তি দেবে। রাগের অতিরিক্ত বইয়ের প্রকাশ করলে কি কি সমস্যা হতে পারে তা নিয়ে আলোচনা করুন সঙ্গী অথবা সঙ্গিনীর সঙ্গে।

সমবেদনা জানান: সমবেদনার মাধ্যমে আপনি আপনার সঙ্গী অথবা সঙ্গিনীর আচরণ পরিবর্তন করার চেষ্টা করুন। সহানুভূতি দিয়ে আপনি তার উগ্র মনোভাবকে ভালোবাসায় পরিবর্তন করতে পারবেন।

না বুঝে রাগের কারণ আন্দাজ করবেন না: কখনও না জেনে ধরে ফেলবেন না আপনার সঙ্গী অথবা সংগীনি কি নিয়ে রাগ করছেন। রাগের কারণে তাকে প্রশ্ন করুন এবং তার সঙ্গে আলোচনা করুন, তার ব্যবহারে কি পরিবর্তন আসছে তা খেয়াল করার চেষ্টা করুন। খোলাখুলি কথা বললে যে কোন সমস্যা সমাধান হয়ে যাবে।

মনোযোগ দিয়ে তার কথা শুনুন: আপনার রাগী সঙ্গী অথবা সঙ্গিনীর কথা মন দিয়ে শোনা চেষ্টা করুন। এমনভাবে শুনবেন যাতে আপনি যে তার কথা শুনছেন, সেটা তিনি বুঝতে পারবেন। আপনি তার কথা মনোযোগ সহকারে শুনছেন এটা ভাবলে তার রাগ নিয়ন্ত্রণে চলে আসবে।

প্রাথমিক স্তরে রাগ চিহ্নিত করুন: আপনার সঙ্গী অথবা সংগীনি কোন বিষয়ে রাগ করছে, তা বোঝার চেষ্টা করুন। যত তাড়াতাড়ি আপনি তার রাগ বুঝতে পারবেন তত তাড়াতাড়ি সমস্যার সমাধান হয়ে যাবে, না হলে অনেক সময় পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণের বাইরে চলে যায়।